Tollywood

‘আমি কিছুতেই পিহুকে বলতে পারবোনা আমার বাবাই ওর বাবা-মা’কে মেরেছে’, দৃঢ় সিদ্ধান্ত নিল ঋষি!মন ফাগুনে দেখানো হল জমজমাট পর্ব

আজকে সকালেই প্রকাশিত হয়েছে চলতি সপ্তাহের টিআরপি রেটিং তালিকা।সেখানে দেখা যাচ্ছে যে দুর্দান্ত ভালো ফল করে টিআরপি রেটিং তালিকায় চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে মন ফাগুন। আসলে দুজনেই সম্প্রতি জানতে পেরেছে নিজেদের আসল পরিচয়।

ঋষি জানতে পেরেছে যে পিহুই হল তার প্রিয়দর্শিনী।আর পিহু তো আগেই জেনেছিল যে ঋষিই হলো তার টুবাই দা। তাহলে এবার আসা যাক আজকে কী হলো সেইটা নিয়ে। দোলের দিন তো ভাঙ খেয়ে একে অপরের কাছাকাছি এসে দারুন রোমান্স করেছে দুজনে।একবার ফিরে এসে ঠাম্মির কাছে বকা খায় দুজনে যে ২৪ ঘন্টা হয়ে গেল তাদের কোনো পাত্তাই নেই।

ঠাম্মি এটাও বলে যে দুজনের মধ্যে তো ডিভোর্স হয়েগেছে তাহলে দুজনে একসঙ্গে থাকছে কী করে। সেই সময় ঋষি বলে যে ডিভোর্সটা তো লোক দেখানো একটা নাটক ছিল। ঠাম্মি বলে এর জন্য তোমাদেরকে শাস্তি পেতে হবে। তোমাদেরকে আমি দাঁড়িয়ে থেকে বিয়ে দেবো।

সেই শুনে হাঁফ ছেড়ে বাঁচে ঋষি পিহু‌। আর রুশা বলে দেয় যে যতদিন না বিয়ে হচ্ছে ততদিনে নো টাচিং। এরপর ওই বাড়িতে প্রিয়াঙ্কার ভাত-কাপড়ের অনুষ্ঠান হয়।

আর এর মধ্যেই ঋষি ঠিক করে যে পিহুর বাবা-মাকে যে ঋষির বাবাই ফোন করেছিল এই সত্যিটা কখনোই আনা চলবে না। তাহলে কি পিহু সত্যিটা কোনদিনই জানতে পারবে না? সেটা জানতে গেলে আপনাদের চোখ রাখতে হবে মন ফাগুনের পর্দায়‌।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button