Tollywood

উড়ন তুবড়ির তুবড়ি চুটিয়ে পরকী’য়া করছে বিখ্যাত মডেলের স্বামীর সঙ্গে!সোহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে আত্মহত্যা করতে গেলেন মডেল, ‘তুবড়ি এত নোংরা জানতাম না’, ঘেন্না হচ্ছে নেটিজেনদের

পরকীয়া। শব্দটা বলা যতটা সহজ তার গুরুত্ব ততটাই গভীর এবং নেতিবাচক। কারণ তা একটা সুন্দর সম্পর্ককে একটা সুন্দর সংসারকে ভেঙে চুরমার করে দেয়। ঠিক এমনই এক পরিস্থিতির মুখে এখন কলকাতার জনপ্রিয় মডেল সুস্মিতা পাল ও তাঁর স্বামী সন্দীপন পরিয়াল।

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে স্বামী সম্পর্কে পরকীয়ার অভিযোগ এনেছেন সুস্মিতা। সঙ্গে নাম উঠে এসেছে এক বিখ্যাত জনপ্রিয় ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করা নায়িকার। যাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে তিনি হলেন উড়ন তুবড়ি ধারাবাহিকের নায়িকা সোহিনী ব্যানার্জি।

সন্দীপন পেশায় এক জনপ্রিয় ব্যান্ডের সদস্য। সেই ব্যান্ড আবার গায়ক অনুপম রায়ের। সোহিনীর অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে মডেলের এই স্বামীর সঙ্গে, এই গুরুতর অভিযোগ এনেছেন সুস্মিতা পাল। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এই নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন মডেল সুস্মিতা পাল। কী লিখলেন তিনি?

দাবী সোহিনী বলেছেন তিনি ইতিমধ্যেই অন্য কারোর সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে। তবে কেন তিনি সুস্মিতার স্বামীর সঙ্গে ঘোরাঘুরি করেন? বয়ফ্রেন্ডের সাথে না ঘুরে তিনি নাকি সুস্মিতার স্বামীর সঙ্গে ঘুরছেন ডিনারে যাচ্ছেন সিনেমা দেখছেন।

এরপরেই আরো গুরুতর একটি মন্তব্য রেখেছেন সুস্মিতা। তিনি দাবি করেছেন এই ঘটনাগুলি দিনের পর দিন ঘটে চলায় তা আত্মহত্যার দিকে ঠেলে দিচ্ছে তাঁকে। আত্মহননের নানা চিন্তা আসছে মাথায় এবং এই নিয়ে তিনি বিন্দুমাত্র লজ্জিত নন। যদি স্বামী থাকতেই না চান তাহলে কেন তিনি প্রতারণা করছেন? এই প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করেছেন সুস্মিতা।

অন্যদিকে ফোনে কথা বলতে চাইলে কুকুরের মতো আচরণ করেন স্বামী, দাবি মডেলের। অন্যদিকে দাবি করেছেন ওই মেয়েটি সবকিছু জানা সত্ত্বেও কেন অন্য একটি মেয়ের সাথে এমন করছেন? এই বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক অনেকগুলি জীবন নষ্ট করেছে। তবে সুস্মিতা বাঁচতে চান। তাই তিনি প্রকাশ্যে সাহায্য চেয়েছেন যাতে এই মানসিক দুরবস্থা কাটিয়ে উঠতে পারেন।


এই নিয়ে যাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে সেই অভিনেত্রী সোহিনী ব্যানার্জি বলেছেন তিনি এ নিয়ে কিছু বলতে চান না। তিনি কোন কিছু ব্যাখ্যা দিতে চান না কারণ বন্ধুত্বকে কোনদিন ব্যাখ্যা করা যায় না। তিনি নিজের বয়ফ্রেন্ড এবং সন্দীপনের সাথে মাঝে মাঝেই ঘুরতে বেড়ান। যদি তেমনই কিছু করার থাকতো তাহলে সন্দীপনের সঙ্গে একা ঘুরতে যেতেন তিনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button