সে কী কান্ড! কেবলমাত্র এই কারণে নিজের তলপেটে ট্যাটু করিয়েছেন মিমি?

বর্তমান দিনে ট্যাটু করা এমন একটা জিনিস যেটা করলে আপনাকে সেক্সি আর ট্রেন্ডি লাগবেই। অনেকেই নিজের মনের ভাবনা চিন্তা কে প্রকাশ করার জন্য শরীরে ট্যাটু করেন। অনেকে আবার শখেই ট্যাটু করেন নিজের দেহের বিভিন্ন অংশে। ট্যাটু করাটা কিন্তু আজকের নয়। বহু আগে ট্যাটুর পোশাকি নাম ছিল উল্কি করা।

বলিউডের অনেক নায়ক নায়িকাদের গায়ে ট্যাটু দেখা যায়। আমাদের টলিউড ও কিন্তু পিছিয়ে নেই এই ট্রেন্ডে গা ভাসাতে। মিমি চক্রবর্তী হলেন এমন একজন যার শরীরে দুটি ট্যাটু আছে। একটি ট্যাটু আমরা হামেশাই দেখতে পাই যদি তার ডান হাতে করানো। সেইটা হল একটি নটরাজ মূর্তি। যাকে নিজের লাকি চার্ম বলে মনে করেন তিনি। এটি তার প্রথম ট্যাটু। বছর খানেক আগেও ইনস্টাগ্রামে এই ট্যাটুর এক ছবি পোস্ট করে মিমি লিখেছিলেন- আমার বিশ্বাস, আমার আরাধ্য দেবতা, আমার নটরাজ, আমার শিব, আমার ভক্তি।

MIMI 2 1638775248686

তবে মিমির আর একটি ট্যাটু কোথায় আছে জানেন কি? ডানদিকের তলপেটের উপরে মিমির একটি পালক ট্যাটু করা। আর এই ট্যাটুর আবার রহস্য আছে। হঠাৎ করে ওখানেই ট্যাটু করার কারণটা কী?

MIMI 4 1638775987075

আসলে অ্যাপেনডিক্সের অপারেশন হয়েছিল মিমির। তাই তলপেটে কাটা দাগ ছিল, সেই জন্য ক্রপ টপ বা পেট কাটা পোশাক পরতে গিয়ে মাঝেমধ্যে অসুবিধায় পরতেন মিমি। সেই দাগ লুকানোর জন্যই এই ট্যাটুটি করান অভিনেত্রী। সেই সময়ই মিমি জানিয়েছিলেন, ‘কাটা দাগটা একটু অদ্ভুত লাগছিল তাই আমি ভাবলাম ট্যাটু করে সেটা ঢেকে ফেলি। এখন আমি আরও বেশি করে ক্রপ টপ পরতে পারব’।

Back to top button