Tollywood

অবশেষে গ্রেফতার হলো চড়ুই, আনন্দে আত্মহারা হয়ে গেল লালন! ধামাকাদার পর্ব হতে চলেছে ধূলোকণাতে

সিরিয়াল বলতে বর্তমানে বোঝায় বিনোদনের রসদ। সন্ধ্যাবেলা হতেই মানুষ বসে পড়ে টিভির সামনে একের পর এক সিরিয়াল দেখতে।স্টার জলসা জি বাংলায় হয় বিভিন্ন কনসেপ্টের সিরিয়াল মানুষ নিজেদের রুচি অনুযায়ী সিরিয়াল পছন্দ করে নেয়।

এর আগে টানা 44 সপ্তাহ ধরে টিআরপি রেটিং তালিকায় শীর্ষস্থান ধরে রেখেছিল জি বাংলার মিঠাই। রাত আটটা বাজলে মানুষ জি বাংলার পর্দায় এই সিরিয়াল দেখার জন্য উন্মুখ হয়ে থাকে।তবে এর সঙ্গে স্টার জলসায় রাত 8 টায় যে সিরিয়ালটি হয়, সেটিও কিন্তু মানুষের মন জয় করে নিয়েছে। সেটি হল মানালি দে’র কামব্যাক সিরিয়াল ধূলোকণা। ইন্দ্রাশিষ রায়ের সঙ্গে মানালি দে’কে এই সিরিয়ালে দেখা যাচ্ছে। বড়লোক বাড়ির ড্রাইভার এবং কাজের মেয়ের প্রেম এই গল্পের মূল উপজীব্য। আমি সেই সঙ্গে পারিপার্শ্বিক চরিত্ররাও আছে এবং আছে খলচরিত্র চড়ুই এবং তার মা চান্দ্রেয়ী‌।

সম্প্রতি দেখা যাবে অনেক কিছু ঝড়ঝাপটা সামলে চড়ুই নিজের জেদে আবার লালনের সঙ্গে আশীর্বাদে বসছে। আর এবার আপনি আমাদের প্রতিবেদন থেকে জেনে নিন মঙ্গলবার মহা শিবরাত্রির দিন কী দেখানো হতে চলেছে ধূলোকণাতে। আশীর্বাদে যখন লালন এবং ছবি পাশাপাশি বসবে তখন লালন সেখানে উপস্থিত ফুলঝুরির মুখের দিকে তাকাবে।

আর সেই সময় সাদা পোশাকে একদল পুলিশ আসবে গাঙ্গুলী বাড়িতে। তারা এসে জিজ্ঞাসা করে যে চড়ুই গাঙ্গুলী কে? সেসময় চড়ুই বলে ওঠে যে আমিই চড়ুই গাঙ্গুলী। তখন পুলিশ বলে যে চড়ুইকে অ্যারেস্ট করা হচ্ছে,তাকে থানায় যেতে হবে।

সেই শুনে চড়ুই আর তার মায়ের মাথায় বাজ ভেঙে পড়ে। চড়ুইয়ের বাবা জিজ্ঞাসা করে যে চড়ুই কী এমন করেছে যে তাকে এরেস্ট করতে হবে? পুলিশ জানায় যে চড়ুই গাঙ্গুলী অনেক বড় মাস্টার প্ল্যান এর সাথে জড়িত এবং সে একটি মেয়েকে ফাঁসিয়েছে। এই কথা শুনে লালন হাসতে শুরু করে দেয়।

অবশেষে সকলের সামনে চড়ুইয়ের পর্দা ফাঁস হয়ে গেল। তবে কি ফের বিয়ের পিঁড়িতে বসতে লালন এবং ফুলঝুরি তা দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে নেটিজেনরা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button