হাফ প্যান্ট পরে গলায় জলের বোতল ঝুলিয়ে স্কুলে ভর্তি হল বিহান! ‘টিচারকে আবার জিজ্ঞাসা না করে বাবা কীভাবে হব?’ সোশ্যাল মিডিয়ায় হেসে কুটিপাটি নেটিজেনরা

গত বছর শেষের দিকে স্টার জলসায় এসেছিল খুকুমণি হোম ডেলিভারি। একজন দাপুটে মেয়ে খুকুমণি যার বাবা-মা নেই। মামা মামির বাড়িতে মানুষ এবং বিভিন্ন রকম বাঙালি রান্না করে সে বাড়িতে বাড়িতে হোম ডেলিভারি করে। অন্যায় সে একদম সহ্য করতে পারে না। কোন রকম বিপদ দেখলে সে দৌড়ায় এবং সবজি দিয়ে মারামারি করে।

মানুষ ভেবেছিলেন যে হয়তো খুকুমণির স্ট্রাগল নিয়ে গল্পটা হবে, পরবর্তীকালে খুকুমণি হয়তো বড় কোন রেস্টুরেন্ট খুলবে কিন্তু বাস্তবে হয়ে গেল অন্য। বড়লোক বাড়ির মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলে বিহানকে নিজের দায়িত্বে আগলে রাখতে শুরু করে খুকুমণি এবং পরবর্তীকালে তার সঙ্গে খুকুর আবার দুবার বিয়েও হয়। প্রথমদিকে টিআরপি রেটিং তালিকায় খুব ভালো ফলাফল করছিল সিরিয়াল তারপর গল্পের মান যত নেমেছে সেরকমই টিআরপি রেটিং তালিকা থেকেও বেরিয়ে গেছে এই সিরিয়াল।

বর্তমানে যা দেখানো হয়েছে তা দেখে চোখ কপালে উঠেছে দর্শকদের।কিছুদিন আগে বিহান সকলকে একটাই কথা জিজ্ঞাসা করছিল বাবা কী করে হয় বাবা কী করে হয় আমি বাবা হবো। এখন দেখা যাচ্ছে বিহানকে স্কুলে ভর্তি করা হয়েছে তাকে শিক্ষিত করার জন্য। তার স্কুল ড্রেস দেখে হেসে কুটিপাটি নেটিজেনরা। এত বড় ছেলেকে পরানো হয়েছে নীল রঙের হাফ প্যান্ট, সাদা জামা। সঙ্গে গলায় ঝোলানো রয়েছে ওয়াটার বোটল। খুকুমণি নিজের মোপেড গাড়িতে পৌঁছে দিয়ে আসছে ‌ বিহান কে।

Khukumoni Home Delivery2

বিহানের এই রূপ দেখে হেসে কুটিপাটি খাচ্ছেন নেটিজেনরা। তারা বলছেন যে সিরিয়ালটা আর কত নিচে নামবে? পড়াশুনা শেখানোর নাম করে এই ড্রেস? যিনি বিহান চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি ধূলোকণা সিরিয়ালের মিনি দিদি অর্থাৎ অভিনেত্রী প্রীতি বিশ্বাস এর স্বামী। প্রত্যেক বৃহস্পতিবার তিনি নিজের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে লাইভে আসছেন এবং টিআরপি রেটিং চার্ট নিয়ে বড় বড় কথা বলতেন।

Khukumoni Home Delivery3

 

Khukumoni Home Delivery1

তাই এখন নেটিজেনরা মজা করে বলছেন যে এই ড্রেসেই কি এবার থেকে বিহানবাবু কে লাইভে দেখা যাবে? এত কিছু করেও খুকুমণি স্লট পাবে না এমনটাই বলছেন নেটিজেনরা।

Back to top button