বাবা ঋষি কাপুরের মৃত্যুর মাসেই আলিয়াকে বিয়ে করলেন রণবীর, আবেগপ্রবণ নিতু কাপুর বারবার ভেঙে পড়ছিলেন কান্নায়

একমাত্র ছেলের বিয়ে বলে কথা। মায়ের জন্য এই দিনটি তো অন্যতম এক গুরুত্বপূর্ণ দিন। কিন্তু পাশে নেই স্বামী।বেশ মন খারাপ নিতু কাপুরের। প্রতি মুহূর্তে যেন স্বামী ঋষি কাপুরের কমতি অনুভব করছেন তিনি। বারবার তাঁর মনে পড়ছে নিজের বিয়ের কথা।তবে ছেলের জন্য বেজায় খুশি নিতু কাপুর। অবশেষে নিজের পছন্দের জীবনসঙ্গী খুঁজে পেয়েছেন রণবীর। আলিয়াকে রণবীরের অর্ধাঙ্গিনী হিসেবে সেরা মনে করেন নিতু। ঋষি কাপুরেরও তেমনটাই মত ছিল।

আলিয়াকে খুবই স্নেহ করতেন ঋষি কাপুর। ঋষির মৃত্যুর পর বেশ ভেঙে পড়েছিলেন আলিয়াও। তাঁকে দেখে মনে হয়েছিল যেন জীবনের কোনও গুরুত্বপূর্ণ মানুষকে হারিয়ে ফেলেছেন তিনি। ঋষি কাপুর নিজেই ছেলে রণবীরের বিয়ের সমস্ত পরিকল্পনা করে রেখেছিলেন। তিনি বেঁচে থাকলে হয়ত ২০২০ সালেই বিয়ে হয়ে যেত রণবীর-আলিয়ার। ২০২০ সালের ৩০শে এপ্রিল প্রয়াত হন ঋষি কাপুর। বাবার মৃত্যু মাসেকি বিয়ে করছেন রণবীর-আলিয়া।

Alia Ranbir First Pic

১৪ই এপ্রিল তাদের মুম্বাইয়ের বাড়িতেই বসেছিল রণবীর-আলিয়ার বিয়ের আসর। নিতুর আনন্দের সীমানা নেই। তবে এরই মধ্যে প্রতি মুহূর্তে তিনি মিস করছেন ঋষি কাপুরকে। নিতু-ঋষি দুজনে দাঁড়িয়ে থেকেই রণবীরের বিয়ে দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তেমনটা আর হল না।

রণবীর-আলিয়ার বিয়ের আসর থেকে একজন জানান যে বৌমা আলিয়াকে স্বাগত জানানোর জন্য সমস্ত প্রস্তুতি সেরে ফেলেছেন নিতু। ছেলেকে বরের বেশে দেখতে খুব আগ্রহী তিনি। তবুও বারবার ঋষির কথা মনে পড়তেই চোখ ভিজে যাচ্ছে তাঁর।

1369377482 79338 1486894290

নিতু কাপুর এর আগে সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছিলেন যে ১৪ই এপ্রিল রণবীর-আলিয়ার বিয়ে। জানা গিয়েছে, পুজোর সময়ও বারবার কান্নায় ভেঙে পড়ছিলেন নিতু কাপুর। চোখের জল যেন বাঁধ মানছিল না তাঁর। জানা গিয়েছে, ওইদিনেই ঋষি কাপুর ও নিতু কাপুরের বাগদান হয়েছিল। সেই আবেগকে যেন কোনওভাবেই সামলাতে পারছেন না নিতু।

Back to top button