Bangla Serial

‘উর্মি মরে গিয়ে এবার সিরিয়ালটা বন্ধ হোক’, জি বাংলার পেজে উর্মির অসুস্থ অবস্থায় ছবি দেখে কুরুচিকর আক্রমণ একাধিক নেটিজেনের! ‘এরা কি মানুষ?’, প্রশ্ন উর্মির ভক্তদের

জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক হলো আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়। তবে এই ধারাবাহিক নিয়ে অনেকের অনেক দ্বিমত রয়েছে।সমস্ত সামাজিক ব্যাপারগুলোকে এখানে চোখে আঙুল দিয়ে দেখানো হয় বিশেষ করে মহিলাদের ওপর যখন অত্যাচার করা হয় যেমন পণপ্রথা, মেয়ে দেখতে আসার নাম করে কাজের বউ খুঁজতে আসা এই জিনিসগুলোকে।

সেই মতই কিছুদিন আগে পণপ্রথার বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া দেখানো হয়েছে ধারাবাহিকে। এরপর অরণ্য ষষ্ঠীর নাম করে পরিবারের সকল ছেলে মেয়ে এমনকি উর্মির দাদাকেও হলুদ সুতো বেঁধে দিতে দেখা গেছে রাগী আন্টিকে। ধারাবাহিকের এই কনসেপ্ট দেখে বাহবা জানাচ্ছেন নেটিজেনরা।

তবে ধারাবাহিকের নায়িকা অন্বেষা হাজরা সোশ্যাল মিডিয়ায় লাগাতারভাবে কটাক্ষের শিকার হয়ে চলেছেন কোন অজানা কারণে। দাদাগিরি গ্র্যান্ড ফিনালেতে তার দুটি গানে নাচের পারফরম্যান্স ছিল এবং সেই ভিডিও ক্লিপ জি বাংলার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে প্রকাশ করা হয়।

তারপর থেকেই কমেন্ট বক্সে জমতে থাকে একের পর এক উল্টো পাল্টা কমেন্ট। বাঁচতে জানেনা, তিড়িংবিড়িং করে লাফাচ্ছে, জোকার একটা, সিরিয়ালের সার্কাস করে আর এখানে দাদার সামনে মঞ্চেও সার্কাস করছে। এরকম হাজারো কমেন্টে ভরে যায় কমেন্ট বক্স। অন্বেষার ভক্তরা তার তীব্র প্রতিবাদ করেন কিন্তু উল্টোপাল্টা কমেন্ট কিছুতেই থামে নি।

অন্বেষা নিজেও বলেছেন এর আগে তিনি ভালবাসতে পারেন না তাই অন্য সব ভক্তদের প্রশ্ন হচ্ছে এই কথা জানার পরেও জিবাংলা অন্বেষাকে এরকমভাবে হাসির খোরাক কেন বানিয়ে তুলল? মোহনা আর মেঘাকে আমন্ত্রণ জানাতে পারত নাচের জন্য। এর মধ্যেই আবার নতুন করে নজিরবিহীন আক্রমণের শিকার অন্বেষা হাজরা অর্থাৎ উর্মি।

গতকাল আমরা দেখতে পেয়েছি মামণির দেওয়া বিষ মেশানো চিংড়ি মাছ খেয়ে উর্মির শরীর খারাপ হয়ে যায় এবং তাকে অক্সিজেন দিয়ে নার্সিং হোমে নিয়ে যেতে হয়। মামণির জন্য আবার মৃত্যুর কবলে উর্মি। ওর জন্য আপনারা প্রার্থনা করুন এবং একটি ক্যাপশন দিয়ে জিবাংলা গতকাল একটি পোস্ট দেয় অক্সিজেনের নল বাঁধা অবস্থায় শুয়ে রয়েছে উর্মি এরকম একটি ছবি দিয়ে।


এরপরে সেই কমেন্ট বক্সে একের পর এক মানুষের লিখতে থাকেন মরে গেলে ভালো হয়। সিরিয়াল টা বন্ধ হয়ে যাবে। ওর পাগলামো আর সহ্য করতে হবে না। স্বাভাবিকভাবেই এই কমেন্ট দেখে চমকে উঠেছে অন্বেষার ভক্তরা। তারাও পাল্টা জবাব দিচ্ছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button