Bangla Serial

পিহুকে মিলি বলে দিল ঋষির বাবাই তার বাবার খুনি! পিহু খেল কার হাতে গুলি?মন ফাগুনে শুরু হবে ভালোবাসার অগ্নিপরীক্ষা, ভাইরাল নতুন প্রোমো

মানুষ এখন টানটান উত্তেজনা দেখতে ভীষণ পছন্দ করে। ন্যাকা ন্যাকা সিরিয়াল দেখা তার পছন্দ নয় আর বেশি পারিবারিক কূটকচালি মানুষ নিতে পারে না তার থেকে সাসপেন্স আছে এরকম এপিসোড তাদের খুব পছন্দ। এর উপর নির্ভর করে কিছু সিরিয়ালের টিআরপি বাড়ে আবার কিছু সিরিয়ালের টিআরপি কমে।

স্টার জলসার মনফাগুন সিরিয়ালটি বর্তমানে এখন সেরকমই হচ্ছে।এমনিতেই কিছুদিন আগে নকল প্রিয়দর্শিনী কে নিয়ে আসা হয়েছিল যার ফলে পিহু আর ঋষির বিয়েটা ভেঙে যায়।এই নকল প্রিয়দর্শিনী আসলে মণিকার মেয়ে মিলি। পিহু সেটা জানতে পেরে গেছে আবার অন্যদিকে মিলি পিহুর মাথায় ডান্ডার বাড়ি মেরে তাকে ফ্রিজে ভরে বাড়ি থেকে সরিয়ে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু ঋষির মা সেটা দেখে ফেলেছে এবং পিহুকে ফ্রিজ থেকে বার করতে সাহায্য করেছে।

এই এপিসোডগুলো এতটাই চরম উত্তেজনাপূর্ণ ছিল যে দর্শক এই ক’দিন খুব ভালোমতো মন ফাগুন লেগেছে।আর এর মধ্যেই এসে গেল মন ফাগুনের নতুন প্রোমো যা দেখে দর্শকদের মধ্যে চূড়ান্ত উত্তেজনার সৃষ্টি হলো মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই। সকলেই আশা করছিলেন যে মন ফাগুনের একটা নতুন প্রোমো দেওয়া হবে আর কিছুক্ষণ আগে স্টার জলসা সোশ্যাল মিডিয়া পেজে দেওয়া হয়েছে মন ফাগুনের নতুন প্রোমো, ভালোবাসার অগ্নি পরীক্ষা, চলবে আগামী ২রা মে থেকে ৮ই মে পর্যন্ত।

এই প্রোমো দেখে কেউ বিশ্বাস করতে পারছেন না যে মন ফাগুন সিরিয়ালটা এই পর্যায়ে চলে আসতে পারে। প্রোমোতে কী দেখালো সেটা একটু বলা যাক।আমরা সেই প্রোমোতে দেখতে পেলাম যে মিলি অর্থাৎ নকল প্রিয়দর্শিনী এবং তার মা মণিকা পিহুকে বলে দেয় যে ঋষির বাবা অপ্রতিম সেনশর্মাই পিহুর বাবা-মায়ের খুনি এবং তার হাতে প্রমাণ স্বরূপ ধরিয়ে দেয় সেই সময়ের খবরের কাগজের কাটিং।যা দেখে বিহুর চোখ কপালে উঠে যায় এবং তখন মণিকা পিহুর হাতে একটা বন্দুক দিয়ে বলে তোমাকে এর প্রতিশোধ নিতে হবে।

এর পরের দৃশ্য দেখা যায় পিহু ঋষির দিকে বন্দুক তাক করে দাঁড়িয়ে আছে এবং বলছে যে তোমাকে এর শাস্তি পেতেই হবে টুবাইদা।বলে নিজের মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি করতে যাবে তখন ঋষি তার হাত থেকে বন্দুক নিয়ে নিজের বুকের উপর রাখবে বলবে যে তুমি আমাকে গুলি করো।

এরপরে হঠাৎ করে গুলির আওয়াজ হবে, দেখা যাবে পিহু ধপ করে মাটিতে পড়ে গেছে।পিহুর পিঠ রক্তে ভেসে যাচ্ছে এবং পিহুর পিঠে গুলি লেগেছে আর গুলিটা মেরেছে রুশাদির প্রাক্তন স্বামী সৌমেন।

তাহলে কি পিহু মারা যাবে নাকি অন্য কোনো নতুন রূপে ফিরে আসবে পিহু? সব মিলিয়ে এই প্রোমো দেখে মাথা পুরো ঘেঁটে ঘ হয়ে গেছে দর্শকদের।তারা এখনও অপেক্ষা করছেন মে মাসের প্রথম সপ্তাহের জন্য যেখানে এই প্রোমোতে দেখানো সমস্ত রহস্যের অবসান হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button