Bangla Serial

Gantchhora: অয়নাকে সোজা করা খড়ির কাম্য নয়, তার জন্য বনি এবং দ্যুতিই যোগ্য লোক!ঠাস ঠাস করে অয়নাকে চড় মেরে কামাল করছে বনি আর দ্যুতি

বর্তমানে বাংলা টেলিভিশন জগতে জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল “গাঁটছড়া”। যেটি দু সপ্তাহ পরপর শীর্ষস্থান দখল করে রয়েছে টিআরপি তালিকায়। আর এই শীর্ষস্থান ধরে রাখতে একের পর এক টুইস্ট আনছে গাঁটছড়া ধারাবাহিক। ধারাবাহিকের গল্পটি শুরু হওয়ার সাথে সাথেই দর্শকের খুব মন ছুয়েছিল। তারপরে এই ধারাবাহিকে রয়েছে একাধিক পরিচিত মুখ। যার জন্যে দর্শক এটিকে আরো পছন্দ করেছে।

প্রসঙ্গত এই ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছে অভিনেতা গৌরব চ্যাটার্জি এবং অভিনেত্রীর সোলাঙ্কি রায়। তবে দুজন ছাড়াও রয়েছে শ্রীমা ভট্টাচার্য ,অনিন্দ্য চ্যাটার্জী, রিয়াজ লস্কর, অনুষ্কা গোস্বামী প্রমূখরা। তাদের প্রত্যেকের জুটি দর্শকের খুবই পছন্দের। ধারাবাহিকে তিন অভিনেত্রী একে অপরের বোনের ভূমিকায় অভিনয় করেন যথা দ্যুতি খড়ি এবং বনি।

ধারাবাহিকে বনি তাদের সবচেয়ে ছোট বোন কিন্তু স্বভাবে সে খুবই ডানপিটে এবং অন্যায় দেখলে সে আগে মুখের থেকে হাতে পায়ে বেশি বিশ্বাস করে। কিন্তু তাদের মেজো বোন খড়ি একেবারেই উল্টো। সে সবকিছুই আগে কথাবার্তা দিয়ে শান্তভাবে মেটানোর চেষ্টা করে, আর সবকিছু বুদ্ধি দিয়ে বিবেচনা করে। আর দ্যুতি এতদিন নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত ছিল তবে সম্প্রতি তার চরিত্রের কিছুটা বদল এসেছে সে এখন তার দুই বোনের সাথে মিলে অপরাধীদের শাস্তি দিচ্ছে।

কিছুদিন ধরে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে ধারাবাহিকে সিংহরায়দের প্রতিপক্ষ দত্ত জুয়েলার্সের মেয়ে অয়না সিংহরায়দের ছোট ছেলে কুনালকে বিয়ে করার অজুহাতে বাড়িতে ঢুকে তাদের একাধিক ক্ষতি করার চেষ্টা করছে। এবং সেই সঙ্গে তাদের তিন বোনকে অনেক ছোট করার চেষ্টা করেছে। এর আগে অবশ্য অয়নাকে বনি একবার যোগ্য জবাব দিয়েছিল চড় থাপ্পড় মেরে।

কিন্তু তারপরেও সে আবার শয়তানি করতে ফিরে এসেছে কিন্তু এখন সে সবার সামনে ভালো মানুষ সেজে রয়েছে। তবে গতকালের পর্বে দেখা গেছে যে তাদের মেজো বোন দ্যুতিকে এবং তার দুই বোনকে সে অপমান করার চেষ্টা করলে তখন দ্যুতি তাকে টেনে এনে সজরে থাপ্পড় মারে।

আর সেই দেখেই দর্শকরা তো উচ্ছ্বাসিত। দর্শকদের একাংশের মত যে খড়ি শুধু একটা চড় মেরেই শান্ত হয়ে যায়, আর কিছু বলতে পারে না। কিন্তু তার আর দুই বোন যে অয়নাকে তার যোগ্য জবাব দিয়ে ঠান্ডা করেছে সেটাই ঠিক।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button