Tollywood

মারা গেছেন, এখন তো অভিষেককে নিয়ে ন্যাকা কান্না কাঁদার রাজনীতি বন্ধ করুন প্রসেনজিৎ ঋতুপর্ণারা! চাইছেন অভিষেক অনুরাগীরা

গতকাল হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়। এত কম বয়সে নায়কের মৃত্যু মেনে নিতে পারেননি তাঁর সহকর্মী থেকে শুরু করে অনুরাগীরাও। একটা সময় দাপিয়ে অভিনয় করেছেন টলিউড সিনেমাতে। তারপর হঠাৎ করে হারিয়ে গেলেন নায়ক।

কিন্তু এর কোনো কারণ প্রকাশ্যে আসেনি। যদিও কারণটা অনেকের কাছেই পরিষ্কার কারণ নায়ক একাধিকবার উল্লেখ করেছেন ইন্ডাস্ট্রির নোংরা রাজনীতির কথা। টলিউডের দুই জনপ্রিয় অভিনেতা অভিনেত্রী দিকে আঙুল তুলেছেন অভিষেক ওরফে মিঠু।

৯০ দশকেও ইন্ডাস্ট্রিতে স্বজনপোষণের অস্তিত্ব ছিল সে কথা অস্বীকার করা যায় না। ২০০৯ সালে শেষ চাওয়া পাওয়া সিনেমা দেখা গিয়েছিল অভিষেককে।

ওই সিনেমাতে তাঁর সঙ্গে অভিনয় করেছিলেন প্রসেনজিৎ এবং ঋতুপর্ণা। এটা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের শেষ সিনেমা। এরপরে নায়কের বেশ কিছু ছবি বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। এর জন্য দায়ী বুম্বাদা এবং ঋতুপর্ণা সেইকথা বারবার প্রকাশ্যে এনেছেন অভিনেতা। এতদিন এর বিরুদ্ধে কোন প্রতিবাদ হয়নি। এবার অভিনেতা মৃত্যুর পর প্রতিবাদ করলেন অনুরাগীরা।

একাধিক কমেন্টে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করেছেন নেটিজেনরা। অভিষেকের কেরিয়ার যে তিনিই শেষ করেছেন সে কথাই বলেছেন সকলে। এদিকে অভিষেকের প্রধান এরপর অন্যান্য তারকারা প্রতিক্রিয়া দিলেও মুখ খোলেননি প্রসেনজিৎ।

ভিডিও সোর্স; খাস খবর।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button