Tollywood

গুনগুন অর্থাৎ তৃণা সাহা খড়কুটোতে তোতলায়!এটা কি তার জন্মগত রোগ? নেটিজেনদের কটাক্ষের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন তৃণা

বাংলা সিরিয়াল মানেই বিনোদনের আসর।দৈনন্দিন জীবনের একঘেয়েমি কাটাতে আমরা এখন সিরিয়ালকেই নিজেদের বিনোদনের রসদ হিসেবে খুঁজে নিয়েছি। সন্ধ্যাবেলা হলেই চা মুড়ি নিয়ে আমরা বসে পড়ি টিভির সামনে।

হাসি-কান্না-রাগ-অভিমান সব মিলিয়ে টিভি সিরিয়াল গুলো কিন্তু আমাদের প্রাত্যহিক বিনোদন জুগিয়ে যায়।আগে সপ্তাহে 5 দিন করে সিরিয়াল হতো কিন্তু এখন দর্শকদের প্রবল চাহিদার কারণে বহু সিরিয়াল সপ্তাহের সাত দিনই দেখানো হয় সেই কারণে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের ওপর চাপও বেড়েছে অনেকটা। তবুও তারা হাসিমুখে শুটিং করেন দর্শকদের চাহিদার কথা ভেবে।

স্টার জলসার অত্যন্ত জনপ্রিয় সিরিয়াল ছিল খড়কুটো। আগে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার সময় দেখানো হত এই সিরিয়াল। গুনগুন এবং সৌজন্যর রোমান্স দেখার জন্য সাধারণ মানুষ অপেক্ষা করে থাকত। ছোট্ট বাচ্চাদের মত স্বভাবের গুনগুনকে সকলের খুব ভালো লাগতো।

গোটা সিরিয়ালে আমরা তৃণা সাহাকে অনেক সময় দেখেছি তুতলে তুতলে কথা বলতে। অধিকাংশ মানুষ ভেবেছিলেন এটা বোধহয় তৃণা সাহার জন্মগত রোগ। তারা এই নিয়ে তৃণাকে ট্রোল করতে ছাড়েননি। কিন্তু এবার একটা সাক্ষাৎকারে বেরিয়ে এলো আসল সত্যি।

গুনগুন অর্থাৎ তৃণা জানালেন, তিনি আসলে তোতলা নন। যদি খড়কুটো সিরিয়াল আমরা মন দিয়ে দেখে থাকি তাহলে দেখব গুনগুনের ড্যাডি মাঝে মাঝে একটু তুতলে কথা বলতেন। তাই তাকে যাতে ড্যাডির মেয়ে লাগে সেইজন্য তিনিও মাঝে মাঝে তুতলে কথা বলতেন। তার এই প্রকৃত সত্যি জেনে হতবাক সকলে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button