Bollywood

শাহীনবাগ টুইট মামলায় ভাতিন্ডা কোর্টে হাজিরার নোটিস কঙ্গনাকে! এবার লক আপে কি নিজেই ঢুকবেন কুইন?

সোশ্যাল মিডিয়ায় যথেষ্ট সক্রিয় থাকেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। তবে তাঁর বেশিরভাগ টুইট বা পোস্ট বিতর্কিত হওয়ায় তিনি সেগুলি পোস্ট করতেই মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সদ্য তিনি টুইট করেছিলেন ‘শাহীনবাগ দাদী’কে কেন্দ্র করে। এবার সেই মামলায় তাঁকে ভাতিন্ডা কোর্টে হাজিরার নোটিস পাঠানো হলো। ১৯ এপ্রিলের মধ্যে তাঁকে হাজির হওয়ার নোটিস দেওয়া হয়েছে। টুইটারে মহিন্দর কৌরকে কঙ্গনা ‘শাহীনবাগ দাদী’ বলে ভুল পরিচয় দেন। তারপরেই মহিন্দর কঙ্গনার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন।

মহিন্দরের আইনজীবী রঘবীর সিং বেহনিওয়াল জানান যে কঙ্গনাকে সমন পাঠানো হয় ১৯ এপ্রিল কোর্টে হাজির হওয়ার জন্যে। তিনি জানান যে অভিনেত্রী বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয় ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে। অভিযোগে মহিন্দর বলেন যে তাঁর বিরুদ্ধে কঙ্গনা মিথ্যে অভিযুক্তি এবং মিথ্যে তথ্য দিয়েছেন তাঁকে এক মহিলার সঙ্গে তুলনা করে।

সেখানে কঙ্গনা নাকি বলেন ইনিই সেই মহিলা যিনি শাহীনবাগ প্রতিবাদ মামলায় যুক্ত ছিলেন। তাঁর মতে কঙ্গনা এই তথ্যগুলো দেওয়ার মাধ্যমে অভিনেত্রী তাঁর সম্মানহানি করেছেন। মহিন্দর পঞ্জাবের ভাতিন্ডার বাহাদুরগড় জন্দিয়ান গ্রামের বাসিন্দা।

২০১৯ সালে দিল্লি সংলগ্ন শাহীনবাগ এলাকায় নাগরিক সংশোধনী বিলের প্রতিবাদ মিছিলে বিলকিস বানো খবরে উঠে আসেন। কঙ্গনা তাঁকে মহিন্দরের সঙ্গে গুলিয়ে ফেলেছেন এবং তাঁকেই বিলকিস হিসেবে তুলে ধরেন নিজের টুইটে। নায়িকা টুইট করেন যে শাহীনবাগ দাদী নতুন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় হওয়া কৃষক আন্দোলনেও পা মিলিয়েছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button