Bangla Serial

সিদ্ধার্থকে তবু তো অফিস যেতে দেখা যায় কিন্তু ঋষি এত বড় ব্যবসায়ী তবুও বিয়ে করা ছাড়া তার জীবনে আর কোনো চিন্তা নেই! ‘এইজন্যেই সিডি বয় বেস্ট’ , বলছেন মিঠাই ভক্তরা

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো মন ফাগুন আর অন্যদিকে জি বাংলার অন্যতম এবং বাংলার সবচেয়ে জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো মিঠাই। ধারাবাহিক হিসেবে হয়তো সেরা স্থান এখনো লাভ করতে পারেনি। স্টার জলসার মন ফাগুন তবে ঋষি আর পিহু জুটি কিন্তু সমানে টক্কর দেয় সিড আর মিঠাইয়ের সঙ্গে। তবে এবার একটা জিনিস নিয়ে দর্শকদের মধ্যে তৈরি হয়েছে বিভাজন।

মন ফাগুন ধারাবাহিকে এখন আনন্দের সময়। সমস্ত বাধা পেরিয়ে এক হলো দুই সপ্তর্ষিমণ্ডল। অবশেষে টুবাই দা এবং প্রিয়দর্শিনীর বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে সুষ্ঠুভাবে। এবার পিহু মনিকাকে ধরবে। ভালো মতো টাইট দেবে মনিকাকে। তবে অনেকের অভিযোগ ঋষি সেনকে নিয়ে।

আমরা সকলেই জানি ঋষি খুব বড়লোক বাড়ির ছেলে তবে পিহুর মত বড়লোক নয়। তবে খুব বড় বিজনেসম্যান, ফ্যামিলির বিজনেস সামলায় এরকম আমরা জানতাম‌‌।কিন্তু তাকে ধারাবাহিকের শুরুর দিকে অফিস যেতে দেখা গেলেও পরবর্তীকালে দেখা যায় যে তার লক্ষ্যটা কী করে প্রিয়দর্শিনী কে বিয়ে করা যায় তার দিকে চলে গেছে। কী করে পিহুর মন জয় করা যাবে সেই সব নিয়েই ব্যস্ত থাকে সে।

অন্যদিকে সিদ্ধার্থ মোদক কে আমরা তার প্রফেশন নিয়ে খুব সিরিয়াস দেখেছি।। সে যখন পিজিতে চাকরি করতো তখন নিজের চাকরি নিয়ে প্রচুর সিরিয়াস ছিল এবং পরবর্তীকালে যখন পারিবারিক মিষ্টির ব্যবসায় যোগ দেয় তখন কীভাবে সেটা বাড়ানো যাবে সেই নিয়ে সমানে চিন্তাভাবনা করত।এখনো সে অফিস যায় এবং বাড়িতে ছেলে মেয়ে দুই ভাগ হয়ে যাওয়ার পরেও সে ল্যাপটপ নিয়ে কাজ করতে বসে। কাজ পাগল ছেলে হল সিড এটা বলা যায় অন্যদিকে পিহু পাগল ছেলে হলো ঋষি। এখানেই দুজনের তফাৎ বলছেন মিঠাই এর ভক্তরা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button