Bangla Serial

এটাই মিঠাই রানী! মন ফাগুন মেহেন্দির আগেই বাজারে এসেছিল মিঠাই মেহেন্দি!ভাইরাল‌ পুরনো ছবি

জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো মিঠাই। গত দেড় বছর ধরে আমাদের মনোরঞ্জন করে যাচ্ছে মিঠাই আর মোদক পরিবার। উচ্ছে বাবু আর তুফান মেলের যুগলবন্দি আমাদের ভীষণ পছন্দ।মিঠাই রানী আমাদের ঘরের মেয়ে হয়ে গেছে। শুধু এই দেশে নয় বাংলাদেশেও মিঠাই যথেষ্ট জনপ্রিয়। সত্যি কথা বলতে গেলে বাংলাদেশে মনে হয় মিঠাই বেশি জনপ্রিয়।

গল্পে এখন এন্ট্রি নিয়েছে রিকি দ্য রকস্টার।আসলে রিকি হলো আমাদের সিদ্ধার্থ কিন্তু পিসেমশাই এবং ওমিকে হাতেনাতে ধরার জন্য তাকে ছদ্মবেশ নিতে হয়েছে। যদিও মোদক পরিবারে এসে দুদিন ধরে যে হল্লা সে করছে তাতে হল্লা পার্টিও ফেল। লাফালাফি উচ্চিংড়ের মত রাতুলের ঘাড়ে উঠে পড়া, অদ্ভুত উচ্চারণে কথা বলা, ইয়ো ইয়ো স্টাইল করা, সব মিলিয়ে হাসিতে মাতিয়ে রেখেছে রিকি। মিঠাইকে সে পুরো পাগল করে দিচ্ছে তবে রিকিকে দেখে কিন্তু পিসেমশাই বেশ ঘাবড়ে গেছে। রিকিও পিসেমশাইকে গভীর জলের ফিশ বলে ডাকছে।

সবথেকে বড় কথা হলো নতুন প্রোমো এসে গেছে মিঠাইয়ের সেখানে খুব সম্ভবত আমরা আন্দাজ করতে পারছি যে রিকি নিজের গার্লফ্রেন্ডকে নিয়ে আর মিঠাই সেটা জানতে পেরে কষ্ট পাবে।এখন দেখা যাক আগামী দিনে কী হয় কিন্তু এখন আপনাদের যে খবরটা আমরা দেবো সেটা শুনে আপনি মিঠাই ভক্ত হিসেবে খুবই খুশি হবেন।

সামনে আসছে খুশির ঈদ উপলক্ষ্যে বাজারে আসে নতুন মেহেন্দি। মহিলারা এই সময় হাতে মেহেন্দি করেন। গতকাল আমরা আপনাদের খবর দিয়েছিলাম যে বাজারে এসেছে মন ফাগুন মেহেন্দি। আর আজ আমাদের কাছে এলো মিঠাই মেহেন্দির ছবি।

যদিও এটা কিন্তু এই বছরের নয়, গত বছর বাংলাদেশে ঈদের আগে মিঠাই মেহেন্দি বেরিয়েছিল।মেহেন্দির নাম মিঠাই একটিভ গোল্ড মেহেন্দি এবং যারা এই মেহেন্দি ব্যবহার করেছেন তারা বলছেন যে এর কোয়ালিটি নাকি খুব ভালো।

আজ সকাল থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় মিঠাই মেহেন্দির ছবি ভাইরাল হয়েছে। মিঠাই ভক্তরা বলছেন যে দেখেছ এর জনপ্রিয়তা যে আগের বছরেই বেরিয়ে গেছে মিঠাই মেহেন্দি।যদিও মন ফাগুন ভক্তরা বলছেন যে বাংলাদেশে প্রতিবছর ঈদের সময় কোনো একটা সিরিয়ালের ছবি দিয়ে মেহেন্দি বার হয়। গতবছর ঈদের সময় মিঠাই প্রচলিত সিরিয়াল ছিল তাই মিঠাই নাম দিয়ে বার হয়েছে। যদি ঈদের আগে মন ফাগুন সম্প্রচার শুরু হতো তাহলে মন ফাগুন দিয়েই বার হত।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button