Connect with us

Offbeat

মালদার ছোট্ট শহর থেকে অক্সফোর্ডে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে একমাত্র ভারতীয় হিসাবে উচ্চশিক্ষার সুযোগ! অস্মিতার জীবন কাহিনী পড়লে কুর্নিশ জানাবেন আপনিও

Published

on

নারীরা চাইলে সব কিছু পারে করতে পারে সেটা আরও একবার প্রমাণিত হল। আর সেই প্রমাণ দিলেন মালদা জেলার অস্মিতা সরকার। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্সের সুযোগ পেলেন তিনি।

মালদার ইংরেজবাজারে থাকেন অস্মিতা। অস্মিতার বাবা অসীম কুমার গৌড় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ। মা মিতালি মিশ্র সরকার পেশায় একজন স্কুল শিক্ষিকা। তার মা জানান, মেয়ে অক্সফোর্ডে পড়াশোনা করার সুযোগ পাওয়ায় তারা খুব খুশি। কারণ তার মেয়ের ছোটবেলা থেকেই অক্সফোর্ডে পড়াশোনা করার ইচ্ছে ছিল।

অস্মিতা ছোটোবেলা থেকেই মেধাবী ছাত্রী হিসাবেই পরিচিত। ২০১৬ সালে মালদা জেলার আইসিএসসি বোর্ডের একটি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল থেকে তিনি দশম শ্রেণীর পরীক্ষায় নিজের জেলাতেই দ্বিতীয় হয়েছিলেন। এরপর কলকাতায় ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল থেকে তিনি আইএসসি দ্বাদশে দেশের মধ্যে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছিলেন।

হিস্ট্রি অফ সায়েন্স বিষয় নিয়ে পড়ার ইচ্ছে তার বহু দিনের। তাই উচ্চমাধ্যমিক পাশ করার পর অস্মিতা দিল্লির সেন্ট স্টিফেন্স কলেজে ইতিহাস নিয়ে ভর্তি হন। সেইমতো একদিকে সেখানে হিস্ট্রি অফ সায়েন্স বিষয় নিয়ে পড়াশোনা শুরু করেন।

অপরদিকে অক্সফোর্ডে এই বিষয়ে গবেষণা করার জন্য যে প্রস্তাবটি তিনি পাঠিয়েছিলেন তা গ্রহণ করা হয়। এই বিশ্ববিদ্যালয়ে হিস্ট্রি অফ সায়েন্স বিষয় নিয়ে পড়ার জন্য মাত্র ৩ টি জায়গা ফাঁকা থাকে। যার মধ্যে ১ টি স্থান অস্মিতা পেয়েছেন।

কলেজের ফাইনাল পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর সেপ্টেম্বর মাসে তিনি ইংল্যান্ডে যাবেন রিসার্চ মাস্টার্স করতে। দু-বছরের রিসার্চ মাস্টার্স করার পর সেখানে থেকেই রিসার্চ করার ইচ্ছে রয়েছে অস্মিতার। পরিবারের সাথে মালদা জেলার তার সকল শুভাকাঙ্ক্ষীর ইচ্ছে দেশের নাম অস্মিতা উজ্জ্বল করুক।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending