Entertainment

অপরাজিত’র প্রস্তাব প্রথমে পেয়েছিলেন আবির চ্যাটার্জি! জিতুর সাফল্যে হাত কামড়াচ্ছেন এখন, কিন্তু না কেন বলেছিলেন?

এই মুহূর্তে টলিউডের চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে অপরাজিত সিনেমাটি। পথের পাঁচালী সিনেমা তৈরির নেপথ্য কাহিনী নিয়ে তৈরি করা হয়েছে অনীক দত্তের এই ছবিটি। মুখ্য ভূমিকায় অর্থাৎ সত্যজিৎ রায় ওরফে অপরাজিত রায় চরিত্রে অভিনয় করেছেন জিতু কামাল। অতুলনীয় প্রশংসা পেয়েছেন তিনি।

তবে এবার সামনে এলো এর নেপথ্যের একটি অজানা তথ্য। আপনি কি জানেন যে প্রথমে এই চরিত্রটি করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল টলিউড অভিনেতা আবীর চট্টোপাধ্যায়কে? চমকে গেলেন তো?

হ্যাঁ, পরিচালক অনীক দত্ত নিজেই জানিয়েছিলেন তিনি জিতু কামালকে আগে চিনতেন না। নিজের ছবির জন্য সত্যজিৎ রায় চরিত্রে অভিনয় করার প্রথম প্রস্তাব দিয়েছিল আবির চ্যাটার্জির কাছে। তবে আবির না বলে দিয়েছিলেন। তখন এলেন জিতু। কিন্তু না বললেন কেনো আবির?

এ বিষয়ে মুখ খুললেন আবির। অভিনেতা জানিয়েছেন তিনি এখন বলিউডে ডেবিউ প্রজেক্টর প্রচারে ব্যস্ত। অবরোধ সিজন ২ ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন আবির। সম্প্রতি তার প্রচারের জন্য কলকাতায় এসেছিলেন তিনি। সেখানে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন যখন অপরাজিতর জন্যে প্রস্তাব আসে তখন তিনি ওই প্রোজেক্টের শুটিং করছিলেন কাশ্মীরে। তাও তুমি ম্যানেজ করতে পেরেছিলেন তারিখ।

তবে পশ্চিমবঙ্গে শুটিং শুরু হওয়ার সময় অতিরিক্ত বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল। ওদিকে কাশ্মীরে শুটিংয়ের জন্য দেশের নানা প্রান্ত থেকে অভিনেতা অভিনেত্রীরা চলে এসেছিলেন। তাই শেষমেষ আর অন্য ডেট ঠিক করা সম্ভব ছিল না আবিরের পক্ষে।

অতএব অপরাজিত ছেড়ে দিতে হলো জিতুকে। এখন কি এই নিয়ে অনুতাপ হচ্ছে নায়কের? আবির উত্তর দিলেন একেবারেই তেমনটা নয়। জিতুর সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। আবিরের বাবার সঙ্গে তাঁর খুব ভালো সম্পর্ক। জিতু আবিরের থেকে বয়সে এবং অভিজ্ঞতায় ছোট। ছবিটা খুব সহজ কাজ ছিল না। তাই এর বিপুল সাফল্যে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন গোটা টিমকে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button