Tollywood

‘এত প্রতিশ্রুতিমান হয়েও বড় কাজে ডাকল কই আমাকে?’- কাজ নিয়ে আক্ষেপের সুর অভিনেত্রী কনীনিকার গলায়

২১ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে এক উজ্জ্বল তারকা হিসেবে রয়েছেন অভিনেত্রী কণীনিকা। এর মধ্যে অনেক চরাই উৎরাই পেরিয়েছেন তিনি। কাজের জীবন এবং ব্যক্তিগত জীবন উভয় ক্ষেত্রেই নায়িকা সমানভাবে সাবলীল। এই নিয়ে এক বিশেষ সংবাদ মাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিলেন নায়িকা।

নায়িকাকে জিজ্ঞেস করা হয় যে ২১ বছর পরেও তাঁর পরিচয় রয়ে গিয়েছে পাখি হিসেবে। নায়িকা উত্তর দেন যে ‘কখনও মেঘ কখনও বৃষ্টি’র মেঘ, ‘অন্দরমহল’-এর ‘পরমেশ্বরী’, ইদানীং ‘সইমা’ বলেও তাঁকে চেনেন অনেকেই। ‘হামি’ বা ‘মুখার্জিদার বউ’ও তাঁকে অনেকখানি পরিচিতি দিয়েছে। তবে এই একুশ বছরে হাতেগোনা কিছু ধারাবাহিক আর ছবিতে কাজ করেছেন তিনি যা বেশ কম। কারণ নায়িকা বলেন তিনি কাজের সুযোগ খুব কম পেয়েছেন। লড়াই বেশি আর কাজ কম হয়ে গিয়েছে। বলিউডে চেষ্টা করলেও একই হাল।

নায়িকা আগে পছন্দের চরিত্র বাছাই করতে চাইতেন। কিন্তু ২০১১ থেকে ২০২২ এর মধ্যে তিনি বুঝেছেন টিকে থাকতে হলে চাকরির মতো করে অভিনয় করতে হবে। ইন্ডাস্ট্রি নাকি বলে তিনি নাক উঁচু তাই হয়তো কাজ পান না তিনি। নায়িকা মনে করেন তিনি স্পষ্টবক্তা বলেই এমনটা হয়েছে। নায়িকা একেবারেই রাজনীতি বোঝেন না বলে দিলেন।

এদিকে ডিভোর্সী প্রযোজককে বিয়ে করায় চর্চা হয়েছে নায়িকাকে নিয়ে। তিনি নিজেও নিশ্চিন্ত ছিলেন না এই সম্পর্কে এগোনো উচিত কিনা। স্বামীর আগের পক্ষের সন্তানের সঙ্গেও ভালো সম্পর্ক হয়েছে তাঁর। এদিকে যেহেতু স্বামী প্রযোজক তাই তিনি বলেন যে অনেকেই বলেছেন নায়িকার সঙ্গে কথা বললেই সুরজিৎ ছবি প্রযোজনায় রাজি হয়ে যাবেন। কিন্তু বাস্তবে সেটা নয়। সন্তান কিয়া হওয়ার পর নায়িকা এখনও কাজ করতে চান কিন্তু সবটাই কিয়াকে ভাল রাখার জন্য।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button