Tollywood

Sreelekha Mitra: হৃত্বিক রোশনের দেওয়া অ’ন্তর্বাস টাইট হয়ে গেলো শ্রীলেখা মিত্রের! ভগ্নহৃদয়ে সেটা আবার ডুগ্গুকে ফিরিয়ে দিলেন ছিপছিপে নায়িকা, ‘অনেক বড় মন তো’, নোংরা রসিকতা করছেন নেটিজেনরা

আমাদের এই পৃথিবীতে কত কিছু যে হয় সেটা আমরা নিজেরাও জানিনা। তবে কিছু কিছু সময় আমরা সোশ্যাল মিডিয়াতে এমন কিছু জিনিস দেখে ফেলি যেগুলো দেখলে আমাদের মাথা ঘোরে। তখন ভাবি যে এরকম পোস্ট মানুষ কেন দেয়। আর সেটা যদি কোন সেলিব্রিটির কাছ থেকে আসে তাহলে তো অবাক হওয়ার সীমা পরিসীমা থাকে না।

অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র হলেন এমন একজন সেলিব্রিটি। যাকে আমরা ঠোঁট কাটা বলেই চিনি কিন্তু মাঝে মাঝে তিনি এমন কিছু পোস্ট করে ফেলেন যেগুলো তার বুদ্ধিহীনতারই পরিচয় দেয়, অন্তত এমনটাই মনে করছেন নেটিজেনরা। একটু আগে তিনি কী পোস্ট করেছেন জানেন? এরপরে লোকে যদি হারিয়ে যায় তখন প্রশ্ন করবেন যে কেন লোকে হাসল?

Sreelekha Mitra Age, Wiki, Height, Boyfriend, Affairs & More
আমরা সকলেই জানি ঋত্বিক রোশানের একটি এইচআর এক্স বলে পোশাকের ব্র্যান্ড রয়েছে। মিন্ত্রা অ্যাপ থেকে এই পোশাকের ব্র্যান্ডের একটি ঊর্ধাঙ্গের অন্তর্বাসের অর্ডার দিয়েছিলেন শ্রীলেখা মিত্র। সেটা আমরা কী করে জানলাম? শ্রীলেখা এই জরুরি সংবাদ নিজে ফেসবুকে লিখেছেন।

Actor Sreelekha Mitra claims superstars govern casting in Bengali film industry | Regional-cinema News – India TV
আসলেই তিনি লিখেছেন যে হৃত্বিক রোশনের ব্রে’সিয়ার তার জন্য খুব টাইট হয়েছে।সেটা ফেরত দিয়েছেন এবং আগামী ২৬ তারিখে সেটা রিটার্ন যাবে।সেই সংক্রান্ত মেসেজ তিনি ফেসবুকে পোস্ট করে ক্যাপশন লিখেছেন, সরি হৃত্বিক রোশন তোমার ব্রা আমার হলো না।

বুঝতে পারছেন না ঠিক কী বলবেন। অনেকে বলছেন যে ঠোঁট কাটা হওয়া ভালো কিন্তু তাই বলে স্বেচ্ছাচারী হওয়া ঠিক না। ইয়ার্কি মারতে মারতে নিজের সীমা ভুলে গেছেন নায়িকা।এসব কথা লিখে তিনি নিজে নিজেকে হাসির খোরাক করে তোলেন এবং যখন তাকে এসব নিয়ে কেউ ট্রোলিং করে তিনি রেগে যান।তিনি ভুলে যান যে তিনি কিন্তু একজন পাবলিক ফিগার তাই যা খুশি তাই তিনি নিজের সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে লিখতে পারেন না।

একজন শ্রীলেখা ভক্ত অবশ্য সংবাদমাধ্যমকে সমালোচনা করেছেন কারণ তারা এই বিষয়টিকে নিয়ে খবর করবে। যদিও অনেকেই মনে করছেন, যে উপকরণ যদি দেওয়া হয় তাহলে রান্না করলে দোষ কোথায়? পাবলিক ফোরামে এমন পোস্ট যেই সেলিব্রিটিই করতেন না কেন খবর হতেন, সেখানে আলাদা করে কারোর শ্রীলেখার প্রতি ক্ষোভ নেই ‌

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button