Tollywood

বিকৃত করা হয়েছে ইতিহাস! জোর বিতর্কে নুসরাতের ‘স্বস্তিক সংকেত’,উঠে যাচ্ছে হল থেকে?

গত ২১ জানুয়ারি সিনেমাহলে মুক্তি পেয়েছে বাংলা সিনেমা স্বস্তিক সংকেত। শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, রুদ্রনীল ঘোষ, নুসরত জাহান, গৌরব চক্রবর্তীসহ অনেক অভিনেতা অভিনেত্রীদেরকে দেখতে পাওয়া গেছে এই সিনেমায়। তবে এই সিনেমা নিয়েই নাকি জোর শোরগোল টলিপাড়ায়। কী হয়েছে?

প্রযোজক রানা সরকারের মতে লেখিকা দেবারতী মুখোপাধ্যায়ের ‘নরক সংকেত’ উপন্যাস অবলম্বনে তৈরি করা সিনেমা উপন্যাসের ধারেকাছেও ঘেঁষতে পারেনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে রানা বলেন বলা হয় বাংলা সিনেমা সাহিত্যকে ব্যবহার করে না। করলেও বা তার ফল কী? তিনি যখন ‘নরক সংকেত’ পড়েছিলেন তাঁর খুবই ভালো লেগেছিল। কিন্তু তাঁর মতে এই সিনেমা সেই উপন্যাসের মান রাখতে পারেনি। এই বিষয়ে এক সাক্ষাৎকারে মতামত দেন রুদ্রনীল ঘোষ, সিনেমার পরিচালক সায়ন্তন ঘোষাল, লেখিকা দেবারতি মুখোপাধ্যায় এবং প্রযোজক রানা সরকার।

রানা সরকার পরিচালককে দোষ দেননি। তাঁর মতে পরিচালককে প্রযোজকের কথাই শুনতে হয়। কিন্তু তাঁর মতে শুধুমাত্র সাবসিটি পাওয়ার জন্য লন্ডনে গিয়ে শুটিং করার কী প্রয়োজন? নেতাজি, হিটলারের ঐতিহাসিক তথ্য বিকৃত কেন করা হয়েছে সেই প্রশ্নও করেন। রুদ্রনীল বলেন সবকিছু সবার ভালো লাগতে হবে এর মানে নেই। ‘পুষ্পা’ এত হিট হয়েছে অথচ বহু মানুষ তা না দেখে ‘টনিক’ দেখছে। তাঁর মতে উপন্যাস থেকে সিনেমা হলে উপন্যাসের কাহিনী এবং সিনেমার চিত্রনাট্য আলাদা হয়।

পরিচালক সায়ন্তন ঘোষাল বলেন রানা অভিজ্ঞ মানুষ। তাই তাঁর মতামতকে সম্মান করেন। তবে তিনি বলেন রানাকে এটা মানতে হবে যে কোনও বই থেকে সিনেমা তৈরি করার সময় তার চিত্রনাট্য পাল্টে অনেক কিছু যোগ করতে হয়। দেবারতী বলেন তাঁর উপন্যাসে ইউরোপের শরণার্থী সমস্যাকে বেশি দেখানো হয়। এখানে নেতাজির বিষয় আনার ফলে তা ব্যাকফুটে চলে গেছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button