Tollywood

কারোর মৃত্যু হলে বন্ধ থাকে কাজ তবু অভিষেকের অকালপ্রয়াণেও টলিপাড়ায় বন্ধ হল না শুটিং! কেন টলিপাড়ার এত উদাসীনতা?

অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর পর টলিপাড়ায় শোকের ছায়া। বুধবার একটি অনুষ্ঠানের শুটিংয়ে যান তিনি। সেখানে অসুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে আসার পরই মৃত্যু হয় তাঁর। ইতিমধ্যেই প্রয়াত অভিনেতাকে শ্রদ্ধা জানাতে মানুষ ও তারকাদের ভিড়। নায়কের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীও।

তবুও সঠিক সম্মান পেলেন না নায়ক। একাধিক অভিনেতা-অভিনেত্রীরা শোকপ্রকাশ করলেও ইন্ডাস্ট্রির তরফ থেকে দিন শুটিং বন্ধের কথা ঘোষণা করা হয়নি। সাধারণত কোনও অভিনেতা বা অভিনেত্রী প্রয়াত হলে ২৪ ঘন্টা বা ১২ ঘন্টার জন্য শুটিং বন্ধ রাখা হয়।

টলি ইন্ডাস্ট্রি উদ্যোগ না নিলেও প্রশাসনের তরফ থেকে এই নিয়ম কার্যকর করা হয় তারকাকে শ্রদ্ধা জানাতে। অভিষেকের ক্ষেত্রে তেমনটা কিছুই করা হল না। স্রেফ টুইটে শোকপ্রকাশ করেছেন মমতা। এই গাফিলতি কেন? প্রশ্ন উঠছে যে কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে অভিষেক যুক্ত ছিলেন না বলেই কি এই অবহেলা?

২১ এর বিধানসভা নির্বাচনের আগেই অর্ধেকের বেশি টলিউড তারকারা যোগ দিয়েছেন নানা দলে। কিন্তু সেইসময়ে ব্যতিক্রম ছিলেন অভিষেক। যার জেরে অনুমান করা হচ্ছে হয়তো আর তেমন সম্মান পেলেন না এই অভিনেতা। দিব্যি চলছে অন্যান্য কাজের শুটিং।

শোকবার্তায় মুখ্যমন্ত্রী সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, “বিশিষ্ট অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। তাঁর প্রয়াণে অভিনয় জগতে এক শূন্যতার সৃষ্টি হল। আমি অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের আত্মীয়-পরিজন ও অনুরাগীদের আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি।” পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে তাঁকে ২০১৫ সালে বিশেষ চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button