Tollywood

লকডাউনে বন্ধ হয়েছে আয়!চা বিক্রি করার চেষ্টা করেও এক কাপও বিক্রি করতে পারেননি মিঠুন চক্রবর্তী,শেয়ার করলেন দুঃখের কথা

২০২০ সাল থেকে সেই যে করোনার প্রকোপ শুরু হয়েছে তার প্রভাব লাগাতার চলছে ২০২২ সালে এসেও। নিউ নর্মাল শুধু নামেই। এই মহামারীর কারণেই হারিয়েছে বহু মানুষ, হারিয়েছে বহু মানুষের কাজ। বিশ্ব জুড়েই অসহায় হয়ে পড়েছে অগুনতি মানুষ। এর মধ্যে বাদ পড়েননি সেলেবরাও। বাংলা এবং হিন্দি ফিল্ম জগতের বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব মিঠুন চক্রবর্তীও করোনার থাবা থেকে নিজেকে আটকে রাখতে পারেননি। কঠিন সেই সময়ের লড়াইয়ের স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে আবেগঘন হয়ে পড়লেন তিনি।

কালার্স বাংলার নতুন রিয়ালিটি শো ‘হুনরবাজ’- এর আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে এসেছিলেন মিঠুন। করোনার ফলে যখন লকডাউন হয় সেই সময়ে আয়ের পথে থাবা পরে তার। একাধিক হোটেলের ব্যবসা রয়েছে তাঁর। কিন্তু করোনার জন্যে সব হোটেল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। ফলে বিপদে পড়েছিলেন পর্যটন ও হোটেলের যাবতীয় ব্যবসায়ীরা। এক কাপ কফি বেচতে গিয়েও প্রাণ ওষ্ঠাগত হয়ে গেছিলো তাঁদের। এদিকে কারুর দিক থেকেই তেমন সাহায্য পাননি তাঁরা। কারণ কারুর পক্ষেই তখন সাহায্য করার মতো পরিস্থিতি ছিল না।

পরিস্থিতি এমন হয় যে প্রথমে নিজের পরিবারের কথাই ভাবছিলেন মিঠুন। কিন্তু পরে যখন আয় একেবারেই কম হয়ে যায়, কর্মীদের যা টাকা ছিল সেটাই নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেওয়ার নির্দেশ দেন মিঠুন। শনিবার থেকে শুরু হয়েছে ‘হুনরবাজ’। মিঠুনের পাশাপাশি এই শোয়ের বিচারক হিসেবে দেখা গেলো করণ জোহর এবং পরিণীতি চোপড়াকে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button