Tollywood

Rukmini Maitra: পাঁচ বছর বয়স থেকে কাজ করছেন তবুও নাকি সুন্দরী নায়িকা নন রুক্মিণী মৈত্র! তাহলে কীভাবে দেবের নায়িকা প্রতি সিনেমায়? কেরিয়ার নিয়ে মুখ খুললেন নায়িকা

টলিউড জগতের অন্যতম সুন্দরী এক নায়িকা রুক্মিণী মৈত্র। বিগত বেশ কিছু বছরে নায়িকাকে চিনে ফেলেছে অধিকাংশ সিনেমাপ্রেমী দর্শকরা। সুন্দরী এই নায়িকা একেবারে নতুন মুখ হিসেবে উঠে এসেছিলেন টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে। কিন্তু শুধুমাত্র নিজের অভিনয় প্রতিভার গুনে তিনি বহু মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছেন।

তবে এর পাশাপাশি টলিউড একটা দীর্ঘ সময় ধরে স্বজনপোষণের বিষয় নিয়ে তোলপাড় ছিল। শুধু টলিউড নয় বলিউডেও এই একই ব্যাপারে দেখা গেছে। বহু মানুষ এই বিষয়ে নিজের রাগ প্রকাশ করেছে যারা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যুক্ত। এমনকি অভিনেতা সুপারস্টার দেব বাদ যায়নি তাদের আক্রোশ থেকে।

দর্শকরা এই বাঙালি অভিনেত্রীকে নিয়ে স্বজনপোষণের বিষয়ে জড়িয়েছেন দেবকে। দর্শকদের মতে দেবের প্রেমিকা বলেই বেশিরভাগ ছবিটা জায়গা পেয়ে যাচ্ছেন এই সুন্দরী নায়িকা। সম্প্রতি একটি সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে নিজের কেরিয়ার নিয়ে আলোচনা করছিলেন রুক্মিণী।

সেখানে এই বিষয়টি তুলে ধরেছিলেন। এ বিষয় নিয়ে খোলাখুলি নায়িকা জানিয়েছেন মডেলিংয়ের দুনিয়া থেকে কিভাবে অভিনয় জগতে পা রাখলেন রুক্মিণী। ২০০৫ সালে মাত্র ১২ বছর বয়সে মডেল হিসেবে কেরিয়ার শুরু করেছিলেন নায়িকা। দেখতে দেখতে ১৭টা বছর কেটে গেছে। আর এখন শুধু তিনি একমাত্র সফল মডেল নন পাশাপাশি একজন সফল অভিনেত্রী।

চ্যাম্প সিনেমার মাধ্যমে টলিউড দুনিয়ায় অভিষেক করা রুক্মিণী জানিয়েছেন এই ছবি দেব অভিনীত এবং প্রযোজিত হলেও এর আগে বহু সুপারহিট সিনেমার প্রস্তাব পেয়েছিলেন তিনি। সে তালিকায় নাম রয়েছে প্রেম আমার, আই লাভ ইউ, যোদ্ধা, চিরদিনই তুমি যে আমার ইত্যাদি সিনেমা। তবে প্রত্যেকবার সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন রুক্মিণী।

এর কারণ হিসেবে নায়িকা জানিয়েছিলেন তিনি মনে করতেন তিনি নায়িকা হিসেবে অতটা সুন্দরী নন। নায়িকাকে দেব জানান রুক্মিণীকে তখন দরকার তাঁর। তাই শেষমেষ তিনি রাজি হয়ে গেলেন। আসলে দেব সব সময় চাইতেন অভিনেত্রী অভিনয় জগতেই আসুক। তাই নায়িকা বলেছেন তিনি যে মানুষগুলোকে যত্ন নেন তাঁদের যদি কখনো নায়িকাকে প্রয়োজন পড়ে তিনি তাঁদের পাশে দাঁড়াতে চান এবং না বলেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button