Tollywood

নাচে-গানে জমজমাট সন্ধ্যে, আগামীকাল বরের বাবা-মায়ের বিয়ের সঙ্গীত ও মেহেন্দির অনুষ্ঠানে সকলকে নিমন্ত্রণ জানাল ঊর্মি !

জি বাংলার বেশ জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’। শুরু থেকে এই ধারাবাহিক দর্শকের ভালোবাসা পেয়েছে। এই গল্পের মুখ্য চরিত্র ঊর্মিকে খুব কম সময়ের মধ্যেই আপ্নকরে নিয়েছে দর্শক। ঊর্মির চরিত্রে অভিনেত্রী অন্বেষা হাজরার অভিনয়ে বেশ মুগ্ধ দর্শক।

ঊর্মির চরিত্রে অভিনেত্রী অন্বেষা হাজরার সাবলীল অভিনয়ে মুগ্ধ বাঙালি দর্শক।

এই ধারবাহিকে ঊর্মির দুষ্টু-মিষ্টি অভিনয় ও সাত্যকির সঙ্গে তাঁর প্রেমে বেশ মজেছে দর্শক মহল।মাঝেমধ্যেই ঊর্মির মাথায় ঘোরে নানান ধরণের প্ল্যান। তবে তাঁর মতো করে সহজ ভাবে ভাবতে কজনই বা পারে। আর এই কারণেই হয়ত বড়োলোক বাড়ির মেয়ে হয়েও ছাপোষা মধ্যবিত্ত পরিবারের বউ হিসেবে নিজেকে সুন্দর খাপ খাইয়ে নিয়েছে সে।

কিছুদিন আগেই এই ধারাবাহিকে উদযাপন করা হয়েছে ভ্যালেন্টাইন ডে। এদিন সাত্যকি ঊর্মিকে এক অনবদ্য উপহার দেয়। এভাবেও যে ভালোবাসার দিন পালন করা যায়, তা হয়ত কেউ ভাবতেও পারেনি। ভ্যালেন্টাইন ডে উপলক্ষ্যে ঊর্মিকে গাছের চারা গিফট করে সাত্যকি যাতে তা বড় হয়ে তাদের ভালোবাসার মতোই ফুলে ফেঁপে ওঠে।

আর এদিকে ঊর্মি প্ল্যান করেছে তাঁর শ্বশুর-শাশুড়ির ৩০তম বিবাহবার্ষিকীতে ফের তাদের বিয়ে দেওয়ার। ইতিমধ্যেই তাঁর বাবা অর্থাৎ শ্বশুরকে বুঝিয়ে ফের তাঁকে চাকরি করতে উৎসাহ জুগিয়েছে ঊর্মি। সেই চাকরি পাওয়ার পরই সে বাড়িতে শুরু হয়েছে রাগি আন্টি অর্থাৎ সাত্যকির মা ও তাঁর বাবার ফের বিয়ে দেওয়ার তোড়জোড়।
বিয়ের আগেই রয়েছে সঙ্গীত ও মেহেন্দির অনুষ্ঠানও। আর এই অনুষ্ঠানের জন্য সকলকে আমন্ত্রণ জানাল ঊর্মি।

আসলে জি বাংলার তরফে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি পোস্ট করা হয়েছে যাতে লেখা ‘রাগি আন্টি ও মেহেন্দি অনুষ্ঠান, বিনীতা ঊর্মি”। এরই সঙ্গে দেওয়া অনুষ্ঠানের তারিখ ও স্থানও।

মুখার্জি বাড়িতেই আগামীকাল অর্থাৎ ২২শে ফেব্রুয়ারি রয়েছে এই অনুষ্ঠান। অর্থাৎ ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’-এর আগামীকালের পর্ব যে জমজমাট হতে চলেছে, তা বলাই বাহুল্য। থাকবে নাচ-গান আরও অনেক মজা। এসব দেখতে হলে চোখ রাখতেই হবে রাত ১০টায় জি বাংলার পর্দায়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button