কিশমিশকে হিট করতেই হবে!তাই শেষপর্যন্ত কিনা জুয়া খেললেন দেব

সিনেমার ক্ষেত্রে দেবের ভাগ্য বেশ ভালো চলছে। গোলন্দাজ টনিক তারপর কিশমিশ – সবক্ষেত্রেই ভালো ফল করতে পেরেছে সিনেমাগুলি। তার থেকেও বড় বিষয় দর্শকদের মনে দাগ কাটতে পেরেছে সিনেমাগুলির গল্প। ২৯ এপ্রিল মুক্তি পেয়েছে দেব এবং রুক্মিণী মৈত্র অভিনীত কিশমিশ। ব্যবসার দিক দিয়ে টনিককে ছাপিয়ে গেল এই সিনেমা।

মুক্তি পাওয়ার দিনই শো হাউজফুল ছিল। এখনো সেই ধারা চলছে। এতে খুশি অভিনেত্রী এবং অভিনেতা দুজনেই। পরিচালক এবং অভিনেতা দেবের দাবি সব নতুন পরিচালকের কেরামতি।

সবাই যখন রহস্য- রোমাঞ্চের পেছনে দৌড়াচ্ছে তখন দেব ভরসা করেছিলেন ভালোবাসার গল্প। অভিনেতা বললেন তিনি একরকম জুয়া খেলেছেন। করোনা পরবর্তী সময়ে বাংলা সিনেমার হাল ধরেছিল টনিক।

দীর্ঘ ১০০ দিন ভালো ব্যবসা করেছে। কিন্তু মাত্র কয়েকদিনেই তাকে টেক্কা দিল কিশমিশ।

অবশ্য ছবি প্রচারেও দুজনে অনেক খেটেছেন এমনটাই দাবি করলেন অভিনেতা। কখনো মেট্রোয় উঠেছেন আবার কখনো প্রেমিকা রুক্মিণী সঙ্গে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের রোম্যান্স করিয়েছেন নিজেই।
89014549রান্নাঘর , দিদি নাম্বার ওয়ান , দাদাগিরি কোন কিছুই বাদ রাখেনি প্রচার থেকে। এমনকি জিতের রিয়ালিটি শোয়ে গিয়েছেন প্রচারে। কিশমিশের পাশাপাশি পুরনো বাংলা ছবি গুলোর প্রচার করেছেন নিরন্তর। এমনকি দেবের বাবা এত বছর পরে ছেলের একটি সিনেমা দেখে ছেলেকে চিঠি লিখে জানিয়েছেন তিনি গর্বিত।

Back to top button