Tollywood

Swastika Mukherjee: স্বামী প্রমিত সেনের সঙ্গে বিচ্ছেদ দু দশক আগে, কার নামে শাঁখা-পলা পরে সিঁদুর খেললেন স্বস্তিকা মুখার্জি? প্রশ্ন কৌতুহলী নেট দুনিয়ার

বাঙালির দুর্গা পুজো হল সাবেকিআনার পরিচায়ক। বরণ ও সিঁদুর খেলা তার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ। আর এই একটা দিন কোনও বাঙালি মেয়ে বা বউ মিস করতে চায় না। কারণ এই একটা দিনেই মাকে নিজের মতো ছোঁয়া যায়, তার কাছে প্রাণভরে প্রার্থনা করা যায়, তাকে কানে কানে বলা যায় আবার তাড়াতাড়ি আসিস মা।

যে কোনো সংস্কৃতির নিজস্ব কিছু রীতিনীতি রয়েছে। আর দুর্গাপুজোয় বাঙালি সংস্কৃতি বলতেই ধুতি পাঞ্জাবি আর লাল পাড় সাদা শাড়ি ছাড়া সম্পূর্ণ হয় না সাজ। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সেলিব্রিটিরাও এই সময়টায় একেবারে ঐতিহ্যপূর্ণ সাজে নিজেদের সাজিয়ে তোলেন।

এবার তেমনই এক সাবেকি সাজে ধরা দিলেন বঙ্গ সুন্দরী স্বস্তিকা মুখার্জি। টলিউডের এবং বলিউডের এক জনপ্রিয় অভিনেত্রী হয়ে উঠেছেন তিনি। বিজয়া দশমীর এই সাজ নায়িকাকে একেবারে বাড়ির বৌমার রূপে তুলে ধরেছে। বরাবর বোল্ড লুকে বা আর পাঁচজন মানুষের থেকে একেবারে আলাদারকম লুকে বাজিমাত করেন তিনি। কিন্তু এবার একেবারে বাড়ির বৌমার মত সেজে উঠলেন তিনি।

নায়িকার পরনে লাল পাড় নীল শাড়ি, মাথায় আবার ঘোমটা। হাতে শাঁখা – পলা আর মাথায় সিঁথি ভর্তি সিঁদুর। তার সঙ্গে মানানসই গয়না পরেছেন স্বস্তিকা মুখার্জি। এই দিনটায় মাকে বরণ করতে গিয়ে ঠিক একই রকম সাজে দেখা যায় বাঙালি গৃহবধূদের। বরাবরের স্বতন্ত্র সাজে সেজে ওঠা অভিনেত্রী এবার সাধারণ মেয়ের মতই সাজলেন। মায়ের বিদায় বেলায় ঘাটে গিয়ে কলসি ভরে জল তুললেন। গাল ভর্তি লেগে সিঁদুর অর্থাৎ ভালো করেই সিঁদুর খেলেছেন তিনি।

নায়িকার এই সাবেকি লুক দেখে রীতিমতো আপ্লুত ভক্তরা। মাঝে মাঝেই নায়িকা নিজের পোশাকের জন্য কটাক্ষের মুখে পড়েন। তবে এই সাদামাটা লুকে তিনি যে এতটা মাতিয়ে দিতে পারেন মানুষকে সেটার প্রমাণও পেল নিন্দুকরা। অনেকেই নায়িকাকে বারবার প্রশ্ন করেছে? এতদিন এরকম কেন সাজতেন না তিনি? অনেকে বলছে সাধারণ সাজ কিন্তু অসাধারণ লাগছে দেখতে। পাশাপাশি অনেকে একটা বিষয় তুলে ধরেছে আর সেটা হল স্বামীর সঙ্গে নায়িকার বিচ্ছেদ বহু বছর আগে হয়ে গেছে। তবুও কার নামে সিঁদুর পরেছেন তিনি?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button