Tollywood

‘আপনি খাবারে বিষ মিশিয়ে দিন মা’, সহচরী মৃণালিনীকে নিজেই বলে দিল তাকে জব্দ করার জন্য কী করতে হবে!নতুন প্রোমো দেখে হতবাক নেটিজেনরা

স্টার জলসার অন্যতম জনপ্রিয় সিরিয়াল হলো আয় তবে সহচরী। সহচরী এবং বরফির মধ্যে অসমবয়সী বন্ধুত্ব আর জীবন পথে সহচরীর সমস্ত বাঁধা কাটিয়ে এগিয়ে যাওয়াই ছিল এই গল্পের মূল উপজীব্য।কিন্তু পরবর্তীকালে গল্পের ট্র্যাক সরে যায় এবং চলে যায় সমরেশ এবং দেবিনার পর’কীয়ার দিকে। সেই সময় দর্শক কিছুটা হলেও মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিল সইয়ের থেকে।

তবে পরবর্তীকালে আবার সইয়ের ওপর গুরুত্ব দিয়ে শুরু হয় এই সিরিয়াল। সেজন্য টিআরপিও একটু করে ভালো হতে থাকে এই সিরিয়ালের। বর্তমানে দেখা যাবে যে রেডিও জকি হিসেবে আয় তবে সহচরী একটি প্রোগ্রাম করতে চলেছে আমাদের সহচরী। কিন্তু তার চাকরির জয়েনিং লেটার ছিঁড়ে ফেলে দেয় তার শাশুড়ি মা মৃণালিনী দেবী।

তবে এত সহজে সহচরী দমে যাওয়ার পাত্র নয়। এছাড়াও সে কলেজ ফেস্টে গান এবং নাচ করবে বলে জানায় বরফিকে।আর সেই কথা জানতে পেরে সহচরীর ছোট ননদ মৃণালিনী দেবী কে বলে, বড় বৌদি তো এখন ক্ষ্যাপা অবস্থায় আছে যদি মাইক নিয়ে শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে কিছু বলে দেয়? মৃণালিনী দেবী ভাবেন সত্যিই তো।

সেই সময় আবার সহচরীর বড় ননদ পরামর্শ করে যে, সহচরীকে এমন কিছু করতে হবে যাতে ওর গলাটা খারাপ হয়ে যায়। সহচরী খাবার নিয়ে ঢুকতে গিয়ে এই কথাগুলো শুনতে পেয়ে যায় এবং সে দরজা খুলে ঢুকে পড়ে। তাকে দেখে ভূত দেখার মত চমকে যায় তিনজন।

তখন সহচরী বলে দেয় কিভাবে তাকে জব্দ করতে হবে। বরফ না চিনে বাদামের গুঁড়ো যদি তার খাবারে মিশিয়ে দেওয়া হয় তাহলে তার গলা খারাপ হয়ে যাবে এবং এলার্জি হবে সে গানও গাইতে পারবে না। এই উপায়গুলো সে তার দুই ননদ এবং শাশুড়ি মাকে বলে দেয়।

তারা তিনজন খুব অপ্রস্তুত হয়ে পড়ে এবং সহচরী তাদের মুখে ভালো করে ঝামা ঘষে দেয়। সহচরীর এরকম প্রতিবাদী রূপ দেখে বেশ খুশি তার ভক্তরা। স্বামী এবং শ্বশুর বাড়ির অধিকাংশের থেকে অত্যাচার এবং তারপরে দেবিনার নাটক সহচরী আর নিতে পারছে না। তাই এবার বরফির হাত ধরে নতুন করে বাঁচবে সে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button