Entertainment

Sweta Bhattacharya: ‘আমি কি অকৃতজ্ঞ যে ব্লুজ’কে ছেড়ে দেবো?’, নিজের নামে গুজব শুনে শান্তশিষ্ট শ্বেতা ভট্টাচার্য রেগে লাল! নিন্দুকদের আবার দাঁ নিয়ে তাড়া করবে যমুনা ঢাকি

বাংলা টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন শ্বেতা ভট্টাচার্য। ছোট পর্দা থেকে তিনি সম্প্রতি বড়পর্দায় নাম লিখিয়েছেন। দেব এন্টারটেইনমেন্ট ভেঞ্চার্সের প্রযোজনায় সরস্বতী পূজাতে মুক্তি পেতে চলেছে “প্রজাপতি”। যেখানে শ্বেতা, দেব এবং মিঠুন চক্রবর্তীর সঙ্গে অভিনয় করেছেন। কিছুদিন আগেই শেষ হয়েছে এই ছবির শুটিং।

প্রসঙ্গত বেশ কয়েকদিন আগে শেষ হয়েছে অভিনেত্রীর ছোট পর্দার জনপ্রিয় ধারাবাহিক “যমুনা ঢাকি”। এই ধারাবাহিকে শ্বেতা ভট্টাচার্য অভিনেতা রুবেল দাসের বিপরীতে অভিনয় করছিলেন। জি বাংলার এই ধারাবাহিক দর্শকদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছিল। সম্প্রতি বড় পর্দায় কাজ করলেও তার অভিনয় জগতে পা ছোট পর্দা থেকেই। স্টার জলসা ধারাবাহিক “সিঁদুরখেলা” থেকে তিনি প্রথম অভিনয় জগতে পা দেন। তারপরে “তুমি রবে নীরবে” “জরোয়ার ঝুমকো” “কনক কাঁকন” “যমুনা ঢাকি” একাধিক জনপ্রিয় ধারাবাহিককে অভিনয় করেছেন তিনি।

তার অভিনয়ের শুরু শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্ম থেকে হলেও তাকে জনপ্রিয়তা দিয়েছে ব্লুস প্রোডাকশন অর্থাৎ স্নেহাশীষ চক্রবর্তী। বেশ কিছদিন ধরে শোনা যাচ্ছে যে তিনি স্নেহাশীষ চক্রবর্তীর প্রযোজক সংস্থা ছেড়ে নাম লিখিয়েছেন সুশান্ত দাসের সংস্থায়। কিছুদিনের মধ্যেই নাকি জি বাংলার নতুন ধারাবাহিকে দেখতে পাওয়া যাবে তাকে। তিনি নাকি একই ধরনের গল্পে কাজ করতে করতে এখন ক্লান্ত।

এই নিয়েই তিনি সম্পর্কে একটি সংবাদ মাধ্যমকে বলেন,“এই ধরনের কথা আমি কখনও বলিনি। স্নেহাশিষদার কাছে আমি কৃতজ্ঞ। ওখান থেকেই আমার উত্থান। অগ্রাহ্য করি কী করে! তা ছাড়া আমি নিজেই জি বাংলাকে বলি আমি ধারাবাহিক করতে চাই। আমার মাথার উপর সংসারের দায়িত্ব আছে। তাই ছবির ভরসায় শুধু বসে থাকলে আমার চলবে না।”তবে এও শোনা যাচ্ছে যে নতুন ধারাবাহিকের কথা এখনো কিছু চূড়ান্ত হয়নি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button