Entertainment

গান্ধীজিকে নিয়ে গান গেয়ে শেষে ক্ষমাও চাইতে বাধ্য হলেন স্নিগ্ধজিৎ ভৌমিক! হঠাৎ কেন?

জিটিভির সারেগামাপার মঞ্চ মাতিয়ে রেখেছে বুনিয়াদপুরের ছেলে স্নিগ্ধজিৎ ভৌমিক। রিয়্যালিটি শো-এর শুরু থেকেই তার গায়কীতে মুগ্ধ শ্রোতাদের থেকে শুরু করে বিচারকরাও। গত সপ্তাহে সারেগামাপার গানের বিষয় ছিল দেশের বীর সন্তানদের স্মরণ করা। প্রজাতন্ত্র দিবসের এপিসোডেও স্নিগ্ধজিৎ নিজের প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে গেছে। সহ-প্রতিযোগী শরদ শর্মার সঙ্গে মিলে গান্ধীজিকে স্মরণ করে শ্রদ্ধাঞ্জলি দিয়েছে স্নিগ্ধজিৎ।

এদিন প্রতিযোগী প্রথমে গায় বৈষ্ণব জন তো। এই গান গান্ধীজীর দৈনিক প্রার্থনার অন্তর্ভুক্ত ছিল। এরপর তারা সুপারহিট হিন্দি সিনেমা ‘লাগে রাহো মুন্না ভাই’ এর বিখ্যাত গান ‘বন্দে মে থা দম বন্দেমাতরম’ গায়। এই দুইজনের সুরের মূর্ছনায় রীতিমতো ডুবে যায় বিচারক থেকে দর্শকরাও। সেই গানের ভিডিও স্নিগ্ধজিৎ সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিল। কিন্তু তার পরেই সে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের কাছে ক্ষমা চায়। আসলে সিদ্ধজিৎ এই ভিডিও পোস্ট করে ২৩ জানুয়ারি অর্থাৎ সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মদিনের দিন। আর স্নিগ্ধজিৎ ব্যক্তিগতভাবে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছে গান্ধীজিকে। ফলে অনেক নেটিজেনদের প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় তাকে।

তবে পরে নিজেই নিজের পক্ষে যুক্তি দিয়েছে স্নিগ্ধজিৎ। সে সকলের কাছে ক্ষমা চেয়ে বলেছে আসলে এই ভিডিওটিতে যে গান সে গেয়েছে তা প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে। ওই এপিসোডের গোটা অনুষ্ঠানটিই প্রজাতন্ত্র দিবস স্পেশাল ছিল। তাই প্রতিটি প্রতিযোগী এক একজন স্বাধীনতা সংগ্রামীকে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছে। এর মাঝেই বহু মানুষ তার গায়কীর প্রশংসা করেছে। অনেকে তাকে পরামর্শ দিয়েছে বাকি কথায় কান না দিতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button