Entertainment

প্রসেনজিতের সঙ্গে ঝগড়া হত,দীর্ঘদিন বহু সিনেমা থেকে বাদ পড়তে হল! মুখ খুললেন টলিউড কাঁপানো শতাব্দী রায়

একসময় তিনি ছিলেন টলিউডের প্রথম সারির অভিনেত্রী। টলিউড কাঁপিয়েছেন এই নায়িকা। কিন্তু এখন আর পাত্তা নেই তাঁর। নাম শতাব্দী রায়। দীর্ঘ কয়েক দশক ইন্ডাস্ট্রিতে জমিয়ে কাজ করে প্রতিষ্ঠিত অভিনেত্রী হওয়ার পরও তাঁকে ছবি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এমনই নানা টানটান অভিযোগ নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী ও নেত্রী শতাব্দী রায়। একটি বিশেষ সাক্ষাৎকারে বেশ কিছু অজানা বিষয়ে জানান শতাব্দী।

ছবি থেকে কেন বাদ দেওয়া হয়েছে সেই প্রশ্নে নায়িকা জানান যে নায়ক নায়িকার সম্পর্কের খাতিরে ওই নায়িকাকেই নিতে হবে সিনেমায়। নায়কের সেই আবদারেই অনেক সময় তাঁকে নিয়েও পরে বাদ দেওয়া হয়েছে নাকি। তাঁর বক্তব্য এটা শুধু তখন নয়, এখনও আছে ইন্ডাস্ট্রিতে। সেই সময়কার অভিমান, অপমান সব কাটিয়ে উঠেছেন ধীরে ধীরে।

ইন্ডাস্ট্রিতে স্বজনপোষণ নিয়ে নায়িকা বলেন যে অঞ্জন চৌধুরী তাঁর মেয়েকে নায়িকা বানান। আবার সুখেন দাস তাঁর মেয়েকে হিরোইন করেছিলেন। এটা তাঁর কাছে স্বাভাবিক। কেউ যদি যদি শিল্পী হয়, সে তো চাইবেই যে তার ছেলে-মেয়েরা শিল্পী হোক।

প্রসেনজিৎ-চিরঞ্জিৎ-তাপস পাল, টলিউডের তিন সুপারস্টারের সঙ্গেই চুটিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে নায়িকা বলেন যে ভালো সময় কাটিয়েছেন। ঝগড়াও করতেন। কিন্তু পরে সেটা ঠিক করে নিতেন তাঁরা। আর বুম্বাদার সঙ্গেই বেশি ঝগড়া হতো তাঁর। চিরঞ্জিতের সঙ্গে একটি কাজ করতে গিয়ে তাঁদের সমস্যা হয়। তখন একসঙ্গে কাজ করা বন্ধ রাখেন তাঁরা।

এর পাশাপাশি ইন্ডাস্ট্রির রাজনীতি নিয়ে নায়িকা বলেন যে এই রাজনীতি নোংরা। গ্রুপে কাজ হয়। তাঁর সময়ও গ্রুপ ছিল। কিন্তু তিনি কোনো গ্রুপে থাকতেন না। এখন সকল তারকারাই নাকি নিজের মতো। তবে তাঁর সময়ে এমন ছিলেন না কেউই।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button