Connect with us

Bollywood

সে কী! শ্রেয়া ঘোষালের ছেলের সঙ্গে এটা কী করল তাদের পোষ্য? অবাক হয়ে গেলেন গায়িকা!

Published

on

আমাদের মধ্যে প্রচুর মানুষ আছেন যারা নিজেদের পোষ্যকে নিজের সন্তান বলে মনে করেন। সত্যিই তো তাই, এই চারপেয়ে প্রাণীরা তো মুখে কথা বলতে পারেনা কিন্তু তাদের কাজকর্ম আমাদের মন টাকে সত্যিই ভালো করে দেয়। যদি বিশ্বস্ততা ও ভালোবাসা কারোর কাছ থেকে শিখতে হয় তাহলে কুকুর এদের মধ্যে সবার আগে থাকবে।

বলিউড সেলিব্রিটিদের মধ্যে অনেকেই বাড়িতে পোষ্য হিসাবে কুকুর রেখেছেন।সারমেয়রা তাদের মন খুব সহজেই ভুলিয়ে দেয়। তাই গোটা দিনের ব্যস্ত শিডিউলের পর বাড়িতে এসে যখন তারা পোষ্যর আদর পান তখন নিজেদেরকে ভাগ্যবান মনে করেন তারা।

গায়িকা শ্রেয়া ঘোষালেরও একটি গোল্ডেন রিট্রিভার রয়েছে যার নাম শার্লক। শ্রেয়া এবং তার পরিবার শার্লককে নিজের সন্তান বলেই মনে করেন এবং তার ঝলক উঠে আসে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায়। শার্লকের নিজস্ব একটি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট রয়েছে যেখানে তার ফলোয়ারের সংখ্যা কিন্তু অনেক।

শ্রেয়া ঘোষাল শার্লককে নিজের বড় ছেলে বলেই কিন্তু পরিচয় দেন। আর তার বড় ছেলে আজকে সকালেই একটা আশ্চর্য কান্ড ঘটিয়েছে। সাধারণত সারমেয়র সঙ্গে মানব শিশুদের একটা আলাদা বন্ডিং হয়। কুকুর ভীষণ বাচ্চা ভালবাসে। মানব শিশু এবং সারমেয় কুলের ভালোবাসার ভিডিও আমরা প্রায়শই সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখে থাকি।

এবার শ্রেয়ার ছেলে দেব্যানকে নিজের প্রথম খেলনাটাই দিয়ে দিল শার্লক। যা দেখে খুব খুশি হয়েছেন গায়িকা এবং সেই নিয়ে আপ্লুত হয়ে একটি ছবি তুলে ইনস্টাগ্রামে পোস্টও করে ফেলেছেন।

যেখানে দেখা যাচ্ছে একটি ঝুমঝুমি নিয়ে খেলছে দেব্যান আর তার দিকে হাসি মুখে তাকিয়ে আছে শার্লক। শ্রেয়া পোস্টের ক্যাপশনে লিখেছেন, এইবার শুরু হল। শার্লক তার জীবনের প্রথম খেলনা তার ভাইকে খেলার জন্য দিয়ে দিল। এইভাবেই সে দেব্যানের পারফেক্ট বিগ ব্রাদার হয়ে উঠছে।

স্বাভাবিকভাবেই শ্রেয়া এই পোস্ট করতেই তা মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়। ছবিটি এত মিষ্টি যে লাইক না করে থাকাই যাচ্ছে না। সকলেই শ্রেয়ার প্রশংসা করছেন কারণ শিশু জন্মানোর পর অনেকেই বাড়ির পোষ্যকে তাড়িয়ে দেন বা অন্য কোথাও দিয়ে আসেন। কিন্তু শ্রেয়া সেটা করেননি। তিনি দু’জনকেই সন্তানস্নেহে মানুষ করছেন। এই পোস্ট তার যেসব অনুরাগী যারা পশুপ্রেমী রয়েছে তাদের ভীষণভাবে মন ছুঁয়ে গিয়েছে।

 

 

View this post on Instagram

 

A post shared by shreyaghoshal (@shreyaghoshal)

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending