Bollywood

Jomaloye Jibonto Manush: ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিখ্যাত সিনেমা যমালয়ে জীবন্ত মানুষ মনে আছে? সেই সিনেমাই এবার আসছে হিন্দিতে, চিত্রগুপ্তের চরিত্রে থাকছে বড় চমক

আজ থেকে প্রায় ৬৫ বছর আগে মুক্তি পেয়েছিল যমালয়ে জীবন্ত মানুষ।অসাধারণ একটা গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছিল এই কালজয়ী সিনেমা এবং এটা এখনো টিভিতে দিলে মানুষ বসে বসে দেখে। দুর্ধর্ষ কমেডির চিত্রনাট্য, সেই সঙ্গে উপরি পাওনা ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিনয়। ষাঁড়কে নিয়ে তার ডায়লগ ‘ভোলা, গুঁতো’ এখনো পর্যন্ত মিম মেটেরিয়াল। এবার শোনা যাচ্ছে এই সিনেমার হিন্দি রিমেক আসছে বলিউডে আর ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়ের চরিত্রে অভিনয় করবেন সিদ্ধার্থ মালহোত্রা এবং চিত্রগুপ্তের চরিত্রে অভিনয় করছেন অজয় দেবগণ। কিন্তু বেঁধেছে একটা বড়সড়ো গন্ডগোল।

গত ৯ ই সেপ্টেম্বর মুক্তি পেয়েছে অজয় দেবগন এবং সিদ্ধার্থ মালহোত্রা অভিনীত ছবি “Thank God” এর প্রথম ট্রেলার। আর তা দেখেই নেটিজেনরা একাধিক সমালোচনা শুরু করেছে। প্রথমত হিন্দু ধর্মের ধর্মীয় ভাবাবেগকে আঘাত করা এবং দ্বিতীয়ত বাংলার জনপ্রিয় ছবি “যমালয়ে জীবন্ত মানুষ” কে কপি করার অভিযোগ।

আগামী মাসের ২৪ তারিখে মুক্তি পাবে পরিচালক ইন্দ্র কুমারের ছবি “Thank God”। যেখানে চিত্রগুপ্তের ভূমিকায় অভিনয় করছেন জনপ্রিয় অভিনেতা অজয় দেবগন এবং একজন বদমেজাজি পুলিশ অফিসার আরিয়ান কাপুরের ভূমিকায় অভিনয় করছেন অভিনেতা সিদ্ধার্থ মালহোত্রা। ছবির ট্রেলার সামনে আসার পর থেকে যা বোঝা যাচ্ছে যে ছবির গল্প হতে চলেছে একজন মানুষের স্বর্গ এবং নরকে যাওয়ার যাত্রা পথ নির্ধারণ।


গল্পে দেখা যাবে আরিয়ান বাঁচা এবং মরার মাঝে ঝুলে থাকবে। সেখান থেকেই তাকে নিয়ে গিয়ে তার বিচার করা হবে যে সে স্বর্গে যাবে নাকি নরকের আগুনে পুড়বে। আর এই হিসাব দেবে চন্দ্রগুপ্ত।এমন ট্রেলার আসার পর থেকেই বাংলার নেটিজেনরা বলতে শুরু করেছেন যে এটি ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় অভিনীত “যমালয়ে জীবন্ত মানুষের” নকল করা।

প্রসঙ্গত ১৯৫৮ সালে বাংলা চলচ্চিত্র জগতের একটি কালজ্বয়ী সিনেমা হল “যমালয়ে জীবন্ত মানুষ” ।যা আজও বাঙালি একই রকম ভাবেই মনে রেখেছে। এতগুলো বছর পার হয়ে যাওয়ার পরেও টিভির পর্দায় এই সিনেমাকে দেখতে পেলে বাঙালী টিভির সামনে থেকে আর সরে না। আর সেই ছবির নকল যদি বলিউড করে তাহলে তাকে কিছুতেই ছেড়ে কথা বলবে না বাঙালির দর্শক। তবে এই অভিযোগ সামনে আসার পরেই একাধিক মন্তব্য উঠে এসেছেন পরিচিত ব্যক্তিদের কাছ থেকে।

তেমন ভাবেই এই নিয়ে এক সংবাদমাধ্যম ফিল্ম সমালোচক অরিত্র বন্দোপাধ্যায় এর সঙ্গে কথা বলে। তিনি বলেন, ”যমালয়ে জীবন্ত মানুষের সঙ্গে অবশ্যই Thank God-এর সাদৃশ্য আছে। কিন্তু, এই থিম বা কনসেপ্টের উপর সিনেমা তো এর আগে বহুবার হয়েছে। এই পাপ-পুণ্যের হিসেব, আগে যমরাজের তুলে নিয়ে যাওয়া, এসব তো আগেই বেশ অনেকবারই পর্দায় দেখা গিয়েছে। এই থিমের উপর সিনেমা আমরা আগেও দেখেছি। এমনকী ‘যমালয়ে জীবন্ত মানুষ’ সেই সময়েই তামিল ও তেলেগুতে রিমেক হয়েছিল । হলিউডেও এই বিষয়ের উপর ছবি তৈরি হয়েছে । যেমন Oh My God সিনেমাটি একটা গুজরাটি নাটক থেকে তৈরি হয়েছিল। আবার সেই নাটকের অনুপ্রেরণা ছিল এক অস্ট্রেলিয়ান সিনেমা। মূলত এই কনসেপ্ট ‘যমালয়ে জীবন্ত মানুষ’-এর পর প্রথমবার দেখা যাবে Thank God-এ ব্যাপারটা এমন নয়। তাই সরাসরি কপি ঠিক বলা যাবে না।”

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button