Bollywood

Kartik Aryaan: কোটি টাকার জন্য ক্যান্সারকে প্রমোট নয়, ফেরালেন পান মশলার বিজ্ঞাপন! সুপারস্টার হয়েও সচেতন নাগরিক, কার্তিক আরিয়ানে মুগ্ধ ভারত

সত্যিকারের সুপারস্টার তিনি। কারণ শুধুমাত্র অভিনয়ের দক্ষতা দিয়ে নয় মনুষ্যত্বের দিক দিয়েও মন জিতে নিয়েছেন গোটা ভারতের। তিনি যে একজন সচেতন ভারতীয় নাগরিক তার প্রমাণ দিলেন। আর এটা কোন সিনেমার প্লট নয়। তাই সত্যিকারের সুপারস্টার হয়ে উঠলেন। তিনি হলেন অভিনেতা কার্তিক আরিয়ান।

বলিউডের একাধিক সিনিয়র সুপারস্টার এই মুহূর্তে বিভিন্ন ধরনের পান মশলার বিজ্ঞাপনে প্রচারে যুক্ত। টিভির পর্দা খুললেই তা দেখা যায় হরদম। তালিকায় রয়েছেন শাহরুখ খান থেকে শুরু করে অজয় দেবগন, অক্ষয় কুমারের মত নামিদামি ব্যক্তিত্বরা। সচেতনতার দিক দিয়ে মানুষ হিসেবে এই ব্যক্তিত্বরা ঠিক কতটা সচেতন তা নিয়ে যখন অহরহ প্রশ্ন উঠছে ঠিক সেই সময় ব্যতিক্রমী হিসেবে ধরা দিলেন কার্তিক।

একটা সময় দর্শকরা বারবার অভিযোগ তুলেছিলেন এই সুপারস্টাররা শুধুমাত্র টাকার লোভে কেন গুটকা বা পান মশলা জাতীয় বিজ্ঞাপনে প্রচারের মাধ্যমে প্রকাশ্যে ক্যান্সারকে প্রমোট করছেন? কিন্তু কার্তিক ঠিক তার উল্টোটা করলেন। এমন কী করলেন তিনি যে সকলের মন জিতে নিলেন?

বলিউডের নামিদামি সুপারস্টাররা যখন সবাই সামিল হচ্ছে বিজ্ঞাপনে প্রচারে তখন এক বিশেষ কোম্পানির বিজ্ঞাপনের অফার ফিরিয়ে দিলেন কার্তিক। জানা গেছে সেটা ছিল পান মশলার বিজ্ঞাপন। কাজটা করলে পেতেন ৮ থেকে ৯ কোটি টাকা পারিশ্রমিক।

তবে কার্তিক জানিয়েছেন কিছু মূল্যবোধকে বিশ্বাস করেন তিনি। যেখানে এখন সবাই কোন না কোন প্রস্তাব পেলেই সেটা সঙ্গে সঙ্গে লুফে নেয় সেখানে এত বড় প্রস্তাব ফিরিয়ে দিতে এক মুহূর্ত ভাবেননি কার্তিক। আর এখানেই পরিচয় মেলে তাঁর মানসিকতার।

পান মশলা বা গুটকা জাতীয় দ্রব্য যে কতটা প্রাণঘাতী সেটা আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না। কারণ এর মধ্যে এমন কিছু দ্রব্য থাকে যেটার মাধ্যমে ক্যান্সার হতে পারে। তবে আজকাল প্রকাশ্যে এই ধরনের জিনিস বিক্রি হচ্ছে এবং সেগুলোতে শামিল হচ্ছেন একের পর এক বলিউড সুপারস্টার। তবে এটা পারতপক্ষে দেশের ক্ষতি করছে। তবে নজর স্থাপন করেছেন একমাত্র কার্তিক আরিয়ান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button