Bangla Serial

Anurager Choya: সোনার কারণেই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হবে তার বাবা-মা সূর্য-দীপার! তবে কি অ্যারেস্ট হবে ছোট্ট মেয়েটি? ‘অনুরাগের ছোঁয়া’তে আসছে বড় মোড় ঘোরানো ট্র্যাক

নতুন বছরে দর্শকের বিচারে ও TRP-এর নিরিখে এগিয়ে ‘অনুরাগের ছোঁয়া’। জনপ্রিয় ধারাবাহিক জগদ্ধাত্রীকেও টেক্কা দিয়েছে দীপা-সূর্য জুটি। অর্থাৎ নতুন বছরে প্রথম স্থান দখল করে নিয়েছে স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘অনুরাগের ছোঁয়া’। স্টার জলসার সাম্প্রতিক সিরিয়াল ‘অনুরাগের ছোঁয়া’ বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে দর্শক মহলে। শুরু থেকেই এই ধারাবাহিকটির কাহিনী বেশ আকর্ষণীয় ছিল দর্শকদের কাছে।

May be an image of 3 people and people standing
তবে মাঝখানে অন্যান্য ধারাবাহিকের মতোই অতিরিক্ত কূট-কাচালিতে ভোরে গিয়েছিল এই গল্প ফলে দর্শকদের কাছে এটিও কিছুটা একঘেঁয়ে হয়ে উঠেছিল। তবে বর্তমানে সিরিয়ালটি নতুন মোর আসতেই ফের প্রিয় হয়ে ওঠে এই ধারাবাহিক। দুই মেয়ে সোনা-রুপা গল্পে এনেছে এক নতুনত্বের ছোঁয়া। তাদের অসাধারণ অভিনয় দর্শককের মন ছুঁয়ে গেছে।

তবে ধারাবাহিকে আসবে আরও এক নতুন মোড়, বর্তমানে সূর্য-দীপা একে অপরের থেকে অনেক দূরে রয়েছে। সূর্য তাঁর সন্তান রুপা ও দীপা তাঁর সন্তান সোনার থেকে বহুদিন বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে। দর্শক চান তাদের মাঝের সব ভুলবোঝাবুঝি মিটে গিয়ে তারা যেন একসাথে আবার হাসিমুখে আগের মত থাকে। সিরিয়ালের মোড় এমন দিকেই ঘুরছে যেখানে অনুমান করা যাচ্ছে, হয়তো এবার তারা এক হবে।

দীপা ভাবছে যেহেতু সোনা সূর্যকে বাবা ডাকে তাই সোনা হয়তো সূর্য আর মিশকার মেয়ে। অন্যদিকে সূর্যর মা দীপাকে পেয়ে খুব খুশি হয়েছেন। খুব শীঘ্রই হয়ত মিশকার চক্রান্তের জাল কেটে তারা আবার এক হয়ে যাবে। উল্লেখ্য, ধারাবাহিকের গল্পটি একটি তেলেগু গল্পের অনুকরণে তৈরী হয়েছে। এখনও পর্যন্ত গল্পটি তেলেগু গল্পটির মতোই এগিয়ে চলেছে। আর সেই গল্প অনুযায়ী, খুব শীঘ্র সূর্য দীপার মিল হওয়ার কথা। এবং সোনা-রুপা অনেক বড় হয়ে যাবে। দেখা যাবে সোনার কারণেই দুর্ঘটনায় সূর্য-দীপা মারা যাবে।

হুবহু তেলেগু সিরিয়ালের অনুকরণেই এই ধারাবাহিক চলবে কিনা তা যদিও সঠিকভাবে জানা যায়নি। তবে যদি তাই হয়, তাহলে মিল হওয়ার পর সূর্য-দিপাকে মেরে ফেলা হবে আর সোনা রুপাকে নিয়ে গল্প এগিয়ে যাবে সম্পূর্ণ নতুন ভাবে। তবে যেভাবে একে একে ধারাবাহিকগুলো বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, তাতে নির্মাতারা এতদিন এই ধারাবাহিকটি টানবেন কিনা সেটাও একটা বড় প্রশ্ন। সময়ের সাথে সাথে হয়তো সবটা স্পষ্ট হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button