Bangla Serial

Ekka Dokka: এক ছাদের তলায় না হওয়া বউ এবং বর্তমান বউ! “লীনা পিসি সংসারে আগুন লাগাতে সিদ্ধহস্ত”, বুবলু-রাধিকা দুই বোনের ঝামেলা লাগার প্রমাদ গুনছে দর্শক

যুগ যুগ ধরে দেখা গেছে বাংলা সিরিয়ালে বিয়ের এবং প্রেমের স্থান সবার উপরে। যতই ঝড় জল হোক না কেন পৃথিবী উল্টে যাক না কেন নায়ক নায়িকাকে প্রেম করতেই হবে এবং তাদের বিয়ে হতেই হবে। নইলে সিরিয়ালের টিআরপি আসবে কোথা থেকে?

হ্যাঁ, বর্তমান সময়ে যেমন সিরিয়ালের গল্প পাল্টেছে এবং সিরিয়াল পরিবেশনার স্টাইল পাল্টেছে, ঠিক সেই অনুপাতে পাল্টেছে প্রতিযোগিতা। ফলে বিভিন্ন সিরিয়াল গুলিতে এবং বিভিন্ন চ্যানেলগুলিতে একের পর এক প্রতিযোগিতার পাহাড় নিয়ে আসছে নতুন নতুন সিরিয়াল এবং প্রতিযোগিতা কয়েকগুণ বেড়ে যাচ্ছে। তাই বিভিন্ন ধরনের বিয়ে, বিভিন্ন ধরনের ফুলশয্যা ট্রেন্ড তৈরি করছে এক একটি সিরিয়ালে।

সম্প্রতি যেমন একটি সিরিয়ালে লিপস্টিক দিয়ে সিঁদুর পরানো হয়। ঠিক তার পরেই শুরু হল এক্কা দোক্কা অর্থাৎ স্টার জলসার রাধিকা-পোখরাজের বিয়ের তোড়জোড়। তুই বাড়িতে না মানলেও তারা বিয়ে করেছে কিন্তু তারপরে আর ফুলশয্যা হলো না। তার বদলে নাকি তাদের মধ্যে হতে চলেছে কণ্টকশয্যা।

May be an image of 15 people, people standing and text that says "titual"

তবে তার আগে ধারাবাহিকের একটি নতুন প্রমো সামনে এসেছে যেখানে দেখা গেল শুধু রাধিকা নয়, বিয়ে হয়ে গেছে বুবলুর অর্থাৎ রাধিকার বোনের। একই বাড়িতে দুই বোন বউ হয়ে যেতে চলেছে। এটা দেখে তো অবাক দর্শকরা। একই সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে বিভিন্ন ধরনের জল্পনা।

দুই বউ এর একসাথে গৃহপ্রবেশ। একজন পোখরাজের না হওয়া বউ বুবলু এবং আর একজন তার বর্তমান বউ রাধিকা। বুবলু কোহিনুরের বউ হয়ে এসেছে। তবে ডবল বিয়ে দেখিয়ে লীনা পিসি নিজেকে বিয়ে দেওয়াতে সিদ্ধহস্ত প্রমাণ করে দিল, এমনটাই দাবি করছে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা।

পাশাপাশি আজ অবধি বিভিন্ন সিরিয়ালে দেখা গেছে দুই বোন একজনের প্রেমে পড়ে তাকে বিয়ে করতে চাইলে পরবর্তীকালে তারা একই বাড়িতে বিয়ে করে আসে দুই ভাইয়ের স্ত্রী হয়ে কিন্তু ওই একজনকে পাওয়ার আকাঙ্ক্ষাতে দুজনের মধ্যে শুরু হয় যুদ্ধ। এখানে আবার সেই আশাতেই দুই বোনের একসঙ্গে বিয়ে দিয়ে দিল না তো লীনা পিসি? প্রমাদ গুনছে ভক্তরা।

May be an image of 3 people, people standing and indoor

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button