Bangla Serial

বাংলা সিরিয়াল জগতে পিলুই হলো একমাত্র বুদ্ধিমতী ন্যাকামিবর্জিত চরিত্র! ধারেকাছেও টিকবে না ফুলঝুরি, বর্তমান এপিসোড দেখে দাবি দর্শকদের একাংশের

বর্তমানে জি বাংলায় যে সিরিয়ালটা দুর্দান্ত হচ্ছে সেটা হল পিলু।শাস্ত্রীয় সংগীতের ওপর নির্ভর করে তৈরি হয়েছিল এই সিরিয়াল তবে পরবর্তীকালে গল্প অন্য দিকে মোড় নিয়েছে কিন্তু সেটা দর্শকের একদম একঘেয়ে কূটকচালি লাগছে না বরঞ্চ পরতে পরতে যেন নতুন টুইস্ট আসছে সিরিয়ালে। তাই দর্শকরাও পিলুর এপিসোড একদিনও মিস করছেন না।পিলু এবং গৌরী এলো এই দুটো সিরিয়াল প্রচন্ড ফাস্ট হচ্ছে। প্রোমোতে যা দেখানো হচ্ছে তা তিন চার দিনের মধ্যেই দেখিয়ে ফেলা হচ্ছে সিরিয়ালে।

এইজন্যই দর্শকরা বলছেন যে পিলু সিরিয়ালটা একদম অন্যরকম। দেখতে বেশ ভালো লাগে।আর পিলু শুরু হয়েছে কিন্তু বেশ কয়েক মাস হয়ে গেল তাই নতুন সিরিয়াল বলে লোকে দেখছে এটা কিন্তু নয়।দর্শকরা ফেসবুকে পিলুর সমর্থনে কমেন্ট করছেন এবং লিখছেন যে পিলু সিরিয়াল টা অন্য সিরিয়ালের থেকে একদম আলাদা।

আজকের এপিসোড এ যেমন সে কত সুন্দর করে বলল যে, বসুমল্লিক পরিবার পাল্টাবে না। ওরা প্রথমে পিলুর গান বন্ধ করে দেবে আর সেটা আমি মেনে নিতে পারব না। তখন পিলু কী সুন্দর করে বোঝালো যে, আমি যখন প্রথম সুরমন্ডলে এসেছিলাম তখন আপনি গোঁড়া ছিলেন এখন গোঁড়ামি কেটে রোমান্টিক হয়েছেন। সবাইকে সময় দিতে হবে।

পিলুর বাবা ওস্তাদ আদিত্য নারায়ণ মুখার্জি পর্যন্ত বললেন যে পিলু ভীষণ পজিটিভ একটা চরিত্র। যেকোনো পরিস্থিতিতেই পিলু ভীষণ পজিটিভ সাজেশন দেয়। খুব বুদ্ধি দিয়ে চালাকি করে সত্যিটা বার করে পিলু। পুরুলিয়ার গ্রামের মেয়ে বলে ন্যাকামো করে না। ওস্তাদ আদিত্য নারায়ণ এটাও বলেছেন যে, আহির তুমি পিলুর পাশে সব সময় থাকবে। পিলু নিজেও চায় বসুমল্লিক এবং মুখার্জি দুই পরিবারের মধ্যে মিল হোক।
এইজন্যেই পিলুকে সবার থেকে আলাদা বলছেন দর্শকরা।প্রতিপক্ষ চ্যানেলের যে সিরিয়ালটি এখন সর্বাধিক টিআরপি পাচ্ছে তার নায়িকা ফুলঝুরি প্রচন্ড ন্যাকা, সে সারাক্ষণ কাঁদে। এরকমটাই বলছেন দর্শকরা। বর্তমানে সিরিয়াল জগতে পিলুর সঙ্গে টক্কর দিতে পারে একমাত্র খড়ি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button