Bangla Serial

Guddi: বিয়ের সম্বন্ধ ঠিক হতেই গুড্ডির সামনে যুধাজিতের পোল খুলে গেলো! শিরীনের দেওরের বউ হতে চলেছে গুড্ডি! “এখানে তো সম্পর্ক ঘেঁটে ঘ”, হেসে কূল পাচ্ছে না দর্শক

এই মুহূর্তে স্টার জলসার একটি চর্চিত ধারাবাহিক হলো গুড্ডি। এই ধারাবাহিকের একাধিক দৃশ্য নিয়ে প্রায় সময় সোশ্যাল মিডিয়াতে ট্রোল হতে দেখা যায়। কারণ ধারাবাহিকে অনুজ শিরিন এবং গুড্ডি তিনজনের ত্রিকোণ প্রেমের গল্প দেখতে দেখতে বিরক্ত দর্শক। এমনকি অনুজের চরিত্র নিয়ে সবাই দোষারোপ করছে লেখিকা লীনা গাঙ্গুলিকে। তার কারণ সে একবার শিরিনের কাছে যায় একবার গুড্ডির দিকে যায়। অনুজের এই চরিত্রকে যাতে শিক্ষা দেওয়া হয় এমনটাই চেয়েছে দর্শকরা।

আর ঠিক এমনটাই করেছে লীনা গাঙ্গুলী। এবার অনুজকে যোগ্য শিক্ষা দিয়েছে সে। কারণ সম্প্রতি ধারাবাহিকে একটি নতুন চরিত্রের প্রবেশ ঘটেছে। গুড্ডির জীবনের এসেছে নতুন মানুষ। গুড্ডি যখন অনুজকে দেখতে হাসপাতালে যায় তখনই যুধাজিতের সাথে আলাপ হয় তার। তার পরেই কিছুদিনের মধ্যে গুড্ডিকে মন দিয়ে ফেলেন নতুন ডাক্তার।

Guddi - Watch Episode 290 - Judhajit to Marry Guddi? on Disney+ Hotstar
এই দৃশ্য দেখে অনুরাগীরা বলেছেন, ‘দেবোত্তম এর অভিনয় ক্ষমতা খুবই ভালো যতগুলো দেখেছি এখনো পর্যন্ত দাগ রেখেছে,,,, এবার গুড্ডির জীবনের মোড় একটু ঘোরান পসিটিভিটি আনুন একঘেয়ে নিচু মানের অপমান দেখতে আর ভালোলাগছে না। এবার গুড্ডির পাশে থাকার জন্য ডাক্তার বাবু কে রাখুন সত্যিকারের ভালোবেসে। অনুজের মতো গাছের ও খাবো তলার ও কুড়োব গোছের মেরুদন্ড হীন ব্যাক্তিত্ব একদম ই নয়। গুড্ডির পাশে গুড্ডির মতো দৃঢ় চেতা লড়াই করে জীবনে প্রতিষ্ঠিত একজন কেই প্রয়োজন’।

পরে দেখা গেছে যুধাজিৎ তার মাকে নিয়ে গুড্ডির জন্য সম্বন্ধ নিয়ে অনুজের বাড়িতে যায়। সেই কথা শুনে এই বিয়ের জন্য রাজি টুটুল, ডোডুল, জেঠুমণি এবং মিঠি। কিন্তু একমাত্র রাজি নয় অনুজ। অনুজের সাথে তর্ক বিতর্ক হয়, শেষমেশ যুধোজিৎ এর সাথেই যে গুড্ডির বিয়ে হচ্ছে একথা স্পষ্ট।

কিন্তু এর ধারাবাহিকে এসছে একটি বড়সড় টুইস্ট। যেদিন যুধাজিৎ এবং তার মা অনুজদের বাড়িতে এসেছিল সে সেদিন তার পার্সটা ভুল করে ফেলে রেখে গেছিল। আর তাতেই একটা ছবি দেখে জেঠু মনি এবং মাম্মাম চমকে ওঠে। কিন্তু এখনো জানা যায়নি এই ছবিটি কার তা জানতে হলে পরবর্তী দিনে ধারাবাহিক দেখতে হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button