Mithai Trolled: ‘আদৃত-সৌমীতৃষা ছাড়া যেন আর অন্য কোনও শিল্পী নেই সিরিয়ালে! মিঠাই-এর ফ্যানবেস ভীষণ টক্সিক শেষ হলে বাঁচা যায়’, মন্তব্য নেটিজেনের!

এই মুহূর্তে বাংলা টেলিভিশন দুনিয়ার সবথেকে জনপ্রিয়তম জুটি‌ জানতে চাইলে আপনার মাথায় কোন জুটির নাম আসে? এই জুটির ফ্যান ফলোয়ার্স দেখলে আঁতকে উঠতে পারে যে কেউ। হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন। মিঠাই (Mithai) সিদ্ধার্থর (Siddhartha) জুটি। যাঁদের ধারাবাহিকের নাম মিঠাই (Mithai)। টেলিভিশন দুনিয়ায় দাপট দেখিয়েছে এই ধারাবাহিক। সৌজন্যে এই দুই অভিনেতা অভিনেত্রী। যাঁদের সম্পর্কের কেমিস্ট্রিতে মজে টেলিভিশন জগত।

বিগত দু’বছর যাবৎ জি বাংলায় সম্প্রচারিত ধারাবাহিক “মিঠাই” বাঙালি দর্শকের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয়। আর এই জনপ্রিয়তার নিরিখে টিআরপি তালিকায় দীর্ঘদিন ধরে ফার্স্ট গার্ল ছিল সেই। তবে স্টার জলসার ধারাবাহিক গাঁটছড়ার সৌজন্যে পিছু হটে মিঠাই। এই ধারাবাহিকেই কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী সৌমীতৃষা কুন্ডু। আর নায়কের চরিত্রে সুদর্শন অভিনেতা আদৃত রায়।

mithai 2

নিজের দুষ্টু মিষ্টি অভিনয়ের সৌজন্যে দর্শকদের মন অতি অনায়াস দক্ষতাতে জিতে নিয়েছিলেন সৌমীতৃষা। মিঠাই এবং সিদ্ধার্থের জোড়িকে পর্দায় দেখতে ভীষণ পছন্দ করেন দর্শকরা। তাঁদের জীবনের খুঁটিনাটি বিষয়ের খোঁজ জানতে আগ্রহী দর্শকরা। এমনকী সৌমীতৃষা ও আদৃতের মধ্যেকার সম্পর্ক নিয়েও সমান উৎসাহী ভক্তকূল। আসলে আদৃত এবং সৌমীতৃষার ওভার পজেসিভ তাঁদের তারকা যুগলকে নিয়ে। তাঁদের মতে এই দুজন ছাড়া আর অন্য কোন শিল্পী নেই এই দুনিয়ায়। আর যা পছন্দ নয় অনেকেরই।

এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় এক নেটিজেন সম্প্রতি কলম ধরেছিলেন! তিনি লেখেন, ‘আর পারা যাচ্ছে না…..মিঠাই শেষ হলে সত্যি fan-রা,artist-রা,haters-রা, best friends-রা সবাই বেঁচে যাবে নিঃসন্দেহে! কথাটা মজা করে বলছি মনে হলেও অনেক কষ্ট আর আফসোস থেকে বলছি! আদৃত-সৌমিত্রিশা,আদৃত-সৌমিত্রিশা,আদৃত-সৌমিত্রিশা! এ দুজন ছাড়া আর কোনো artist পৃথিবীতে exist করে না?! অদ্ভুত লাগে,লিট্রেলি কষ্ট হয় বলতে পারেন!প্রকৃতপক্ষে দুজন আর্টিস্ট-ই খুব childish ব্যাবহার করে social media-য়! আর কিছু আবেগী fan-ও আছে, বাপরে!”

তারপর লেখেন, ‘গতকাল বা তার আগের দিন male lead এর এক ভক্ত তার নিজের প্রোফাইল থেকে এক স্ট্যাটাস দিয়ে হ্যান তেন লিখে আবার বলছে একটা ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল,মেজাজ বিগ্রে গেছিলো!হ্যাঁ মেজাজ বিগড়ে গিয়ে চেনা মানুষ অচেনা হয়ে যাওয়ার স্ট্যাটাস দিয়েছিল সে!মানে আমার সাথে যা হবে সব আমি সোশ্যাল মিডিয়ায় উগড়ে দেব আর আগুনে ঘি ঢেলে দেব!ড্রামা’।

সৌমীকে নিয়ে লেখেন যে ‘আর female lead আজীবন তার over possessive fan-দের জন্য কটাক্ষের স্বীকার হয়েছেন সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না!সৌমিত্রিশা আসলে যেমন লাকি একই সাথে খুবই আনলাকি যে তার এমন একটা টক্সিক ফ্যানবেজ আছে। সত্যি বলতে মিঠাইয়ে সৌমিত্রিশার অবদান অনস্বীকার্য!আদৃত ও সবসময় mithai show-এর কাছে greatful সেটা বারবার স্বীকার করেছে।তবুও এতো সমস্যা কেন ভাই?দুটো মানুষ আলাদা,তাদের চিন্তাধারার আকাশ পাতাল তফাৎ,কেন তাদেরকে নিয়ে এত কাটাছেঁড়া!? তারা তাদের জীবনে ভালো, খারাপ, অহংকারী, নিরহংকারী যাই হোক না কেন কি আসে যায় আমাদের?দয়া করে তাদের নিয়ে analysis করা বন্ধ করুন! আর artist দের অনুরোধ করার সাধ্য নেই তবুও যার যার best friend, family সবকিছুই যদি একটু সামলে রাখতো হয়তো এতকিছু হতোই না…’।

তাঁর দাবি, ‘দুজন artist-এর ক্ষেত্রেই কথাগুলো প্রযোজ্য!আর dear solo fans, Please reduce the toxicity & enjoy the show! এসব নিতে পারছিলাম না বলেই সময় নষ্ট করে লিখলাম বহু দিন পর!গ্রূপ গুলোও বড্ড বিষাক্ত লাগছে কিনা!’

Back to top button