Mithai: শেষ হচ্ছে না মিঠাই, গাঁটছড়াকে টাইট দিতে অবশেষে মা হচ্ছে মিঠাই, প্রকাশ্যে এল বেবি বা’ম্প! “সিমিকে দেখতে আর কত দিনের অপেক্ষা করতে হবে?” বলছে দর্শক

বাঙালি বিনোদনপ্রেমীদের পছন্দের সিরিয়ালের তালিকায় সর্বদাই প্রথমে থাকে মিঠাই। মিঠাই আর সিদ্ধার্থের জুটি এখন যেন প্রতিটি বাঙালি বাড়ির মেয়ে জামাই হয়ে উঠেছে। কূট কাচালি, একাকীত্ব আর ষড়যন্ত্রের ভিড়ে হাসি মজা আর মিষ্টি রোম্যান্সে ভরা এই সিরিয়াল একান্নবর্তী পরিবারের আমেজ এনে দেয়।

আমি জনপ্রিয়তা ক্রমশ বাড়ছে আর এই ক্রমশ বাচ্চা থাকা জনপ্রিয় তাকে ধরে রাখার জন্য একের পর এক ধামাকা আনা হচ্ছে সিরিয়ালে। প্রথমে গেল রুদ্র আর নীপার বিয়ে, সেই বিয়েতে আবার গুলি লাগলো মিঠাইয়ের বুকে। যাহোক করে সে সুস্থ হয়ে উঠতে না উঠতেই আবার নতুন ষড়যন্ত্র শুরু করলো প্রমিলা লাহা। আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে বাড়ি ছাড়তে হলো গোটা পরিবারকে। তারপর তারা ভাড়া বাড়িতে এসে উঠলো।

Mithai: 4 self-destructive, toxic habits that Siddhartha needs to change - Zee5 News

তবে এবার একটা জমজমাট কিছু আসতে চলেছে বলেই আশা করছে ভক্তরা। অনেকের মনে হচ্ছে সিরিয়াল কিছুটা একঘেয়ে হয়ে উঠেছে। তাই তাদের জন্য এবার একটা বড় খবর দিচ্ছি আমরা। দেখতে দেখতে বেশ অনেক দিনই হল বিয়ে হয়েছে মিঠাই সিদ্ধার্থর। শুরুতে যাকে সহ্যই করতে পারতো না উচ্ছেবাবু সেই আদরের মিঠাই রানীকে এখন দু চোখে হারায় সে। এখনো তার মনে স্ত্রীর জন্য আস্তে আস্তে ভালোবাসা তৈরি হচ্ছে এবং সেটা গভীর হচ্ছে।

mithai zee bangla fans are furious over sid and mithai romantic scene : 'মিঠাই'কে স্লিভলেস জামা পরাচ্ছে সিড! ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে দেখে রেগে আগুন দর্শকরা | Indian Express Bangla

এবার কি সেই ভালোবাসাপরিণতি পাওয়ার অপেক্ষা? হ্যাঁ, বহুদিন ধরে আনাচে-কানাচে শোনা যাচ্ছিল যে পরিবারে জুনিয়র মোদক আসতে চলেছে। কিন্তু কবে?

SreeMithai
সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিও যেখানে মিঠাইকে অন্য রূপে দেখা গেল। মিঠাই শাড়ি পড়েছে তবে তার পেটের দিকের কিছুটা অংশ স্ফীত হয়ে রয়েছে সামনের দিকে। ঠিক যেমন কোনও মহিলা সন্তান সম্ভবা হলে হয় তেমনটাই লাগছে দেখতে। আর এই থেকেই দর্শকদের মনে ছড়িয়ে গেছে যে খুব তাড়াতাড়ি মা হতে চলেছে মিঠাই রানী। শুটিংয়ের ফাঁকে সকলের ছবি একত্রে করে একটি ভিডিও এডিট করা হয়েছে। তবে আদৌ সত্যি সত্যি মিঠাই প্রেগ’নেন্ট কিনা এই খবরের সত্যতা যাচাই করা হয়নি। কিন্তু খবর সত্যি হলে ক্ষতি কী?

 

View this post on Instagram

 

A post shared by SOUMITRISHA (@soumitrishaofficial)

Back to top button