Bangla Serial

Leena Ganguly: তার লেখনীতে নায়করা বউ রেখে অন্য মেয়ের সাথে ফুর্তি করে রাতে! তিনি “টিআরপি রানী”, “পরকীয়া রানী”! লীনা পিসিকে নিয়ে কবিতা বানালো দর্শক

বাংলা টেলিভিশনের একজন জনপ্রিয় লেখিকা হলেন লীনা গঙ্গোপাধ্যায়। যিনি বহু বছর ধরে বাংলা টেলিভিশনে একাধিক জনপ্রিয় ধারাবাহিক উপহার দিয়েছেন। তবে তার ধারাবাহিক যেমন জনপ্রিয় হয়েছে তেমনি বারবার সোশ্যাল মিডিয়ায় কটাক্ষের মুখে পড়েছে।

প্রথম প্রেমের গল্প লিখেছিলাম ক্লাস সিক্সে: লীনা গঙ্গোপাধ্যায় - a conversation with leena ganguly first lady of bengali tv | ফেমিনা বাংলা
প্রসঙ্গত তার ধারাবাহিকের গল্পগুলি বেশিরভাগই সাংসারিক টানা পড়েন অথবা সম্পর্কের টানা পড়েন নিয়েই হয়ে থাকে। আর সেই দেখে মাঝেমধ্যেই তার গল্পের সমালোচনা করতে দেখা যায় নেটিজেন্দের। সম্প্রতি লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের যে তিনটি ধারাবাহিক সম্প্রচার হচ্ছে সেগুলি হল ‘ধুলোকণা’, ‘এক্কাদোক্কা’ এবং ‘গুড্ডি’।

Guddi - Watch Episode 219 - Anuj Opens up to Guddi on Disney+ Hotstar
প্রশ্নতো তিনটি ধারাবাহিকের মধ্যে দুটিতে ত্রিকোণ প্রেম এবং পরকীয়া এসবকেই বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। যার ফলে বারবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রল হতে দেখা গেছে এই ধারাবাহিক গুলিকে। যেমন গুড্ডি ধারাবাহিকে অনুজের বিয়ে হয়ে যাওয়ার পরেও সে এখনো গুড্ডির সঙ্গে সম্পর্ক রেখে দেয় আর উল্টো দিকে “ধুলোকণা”য় লালন ফুলঝুরিকে ছেড়ে এখন তিতিরের সঙ্গে থাকতে চায়।

এইসব দেখে বেশ কিছুদিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় নানারকম মন্তব্য উঠে আসছিল তবে এবার এক নেটিজেন লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের লেখনী নিয়ে কটাক্ষ করেই এক প্রকার কবিতা লেখেন। তিনি যা লিখেছেন সেটি হল,”সবার প্রিয় পরকীয়া রানি কে নিয়ে ছোট্ট কবিতাঃ
“পরকীয়া পিসি” সবাই ডাকে তাকে, লিনা গাঙ্গুলি তার নাম,
সব সিরিয়ালে নোংরামি পরকীয়া দেখানোই তার কাম।
এনার সিরিয়াল মানেই হাজারবার বিয়ে,
এনার গল্প শুধুই বকবক আর ত্রিকোণ প্রেম নিয়ে।
সব নায়ক গুলোই হয়ে ওঠে চরিত্রহীন এনার লেখনির জাদুতে,
নায়ক রা বউ রেখে অন্য মেয়ের সাথে ফূর্তি করে রাতে।
এইসব দেখিয়েই উনি হয়ে উঠেছেন বাংলার শ্রেষ্ঠ লেখিকা, টি আরপি তে মারে ছক্কা
.. কিন্তু আসলে দর্শকদের ওনার মতো অহংকারী এক গুঁয়ে লেখিকাকে এই ইন্ডাস্ট্রি থেকে দেওয়া উচিত ধাক্কা
জয় লিনা গাঙ্গুলির জয়”

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button