Bangla Serial

Gaatchora: স্মৃতি ফিরল ঈশার! ঈশা’ই কি তবে ‘খড়ি’? এবার কোন মোড় টান নিতে চলেছে গাঁটছড়া’? জানুন

টিআরপির লড়াইয়ে কিছুটা পিছিয়ে গেলেও আবার আগের আসনেই ফিরতে চলেছে ষ্টার জলসার ‘গাঁটছড়া’। গল্পের মোর একটু ঘুরতেই বেশ আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে এই ধারাবাহিক। ধারাবাহিকে ঋদ্ধিমান সিংহ রায় এর চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেতা গৌরব চট্টোপাধ্যায় এবং খড়ি সিংহ রায়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী শোলাঙ্কি রায়। সাংসারিক জীবনের অনেক ওঠানামা সামলে গল্পে ফের নতুন মোচড় আনতে পরিচালক অন্যান্য ধারাবাহিকের পথটি বেঁচে নিয়েছে, অর্থাৎ সেই মৃত্যু-মৃত্যু খেলা।

বর্তমানে দেখানো হচ্ছে, খড়ি মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু ঋদ্ধিমান খড়ির মৃত্যু মেনে নেয়নি। আর তারপরই ধারাবাহিকে এল নতুন চমক। আটপৌরে সাধারণ সাজপোশাক এবং মধ্যবিত্ত চিন্তাধারার খড়ি ফিরে এল এক নয়া রূপে, নতুন আদব-কায়দায়। নিজেকে আপাদমস্তক পাল্টে ফেলেছে সে। এমনকী চুলের ছাটেও এনেছে আমূল পরিবর্তন। নামও পাল্টে হয় ‘ঈশা’।

অনেকেরই মনে হয় ঈশা আর খড়ি আলাদা কিন্তু রিদ্ধিমান মনে করে এরা দুজনেই এক। যদিও ঈশাই যে খড়ি- এটা ঈশা নিজেও প্রথম থেকেই মানতে চাননা। এদিকে ঋদ্ধি জানার চেষ্টা করে এই বদলের কারণ কি? তবে কি খড়ি সব ভুলে গেছে পুরোনো স্মৃতি? অন্যদিকে খড়ির বোন বনি জানতে পারে খড়ির মৃত্যুর কারণ এই সিংহ রায় বাড়িতেই লুকিয়ে রয়েছে। তাই সে খুঁজতে থাকে সেই খুনিকে।

আগেই দেখানো হয়, মৈনাক খড়ির ব্যাপারে কিছু লোকাচ্ছে বলে সন্দেহ করে ঋদ্ধি। এবং সে বারবার মৈনাককে খড়ির বিষয়ে প্রশ্ন করলেও সে কোনো উত্তর দেয়না। কিন্তু কথা বলতে গিয়ে মুখ ফস্কে বলে ফেলে, এর পেছনে অনেক রহস্য লুকিয়ে আছে। আর সেই রহস্যকেই খুঁজে চলেছে ঋদ্ধি।

এবার খোদ ঈশার মনে এল সন্দেহ। খরিকে হুবহু নিজের মতো দেখে বেশ আশ্চর্য হয় ঈশা। তার মনে হয় এর পেছনে কোনো কারণ হয়তো আছে। এদিকে তার ভালো মা চায় না ইশাকে আসল সত্যি জানাতে। সে শুধু ইশাকে তার মা, বাবার মৃত্যুর বদলা নিতে বাধ্য করে সর্বদা। ভালো মায়ের উপর বিশ্বাস করলেও এবার ঈশার মনে একটু সন্দেহের বীজ বেঁধেছে। আর তারফলেই সে এখন সত্যের অনুসন্ধান করতে শুরু করেছে। একদিকে ঋদ্ধি ও আরেকদিকে ঈশা। এবার এটাই দেখার, কতদিনে সকল সত্য সামনে আসবে? আর ‘ঈশা’-ই কি ‘খড়ি’? এর উত্তর মিলবে!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button