Bangla Serial

Godhuli Alap: হাজার ঝড় ঝাপটা পেরিয়ে কাছাকাছি এলো নোলক-অরিন্দম! একে অপরকে ছাড়া কেউ থাকবে না, কথা দিল দুজনেই! ‘অরিলোক জুটি সিধাইয়ের থেকেও ভালো’, বলছেন জলসা ভক্তরা

জি বাংলার জনপ্রিয় জুটি রয়েছে দুজন তারা হলো সিদ্ধার্থ এবং মিঠাই জুটি এবং টুকাইবাবু আর উর্মি। সব সময় এদের নিয়েই আলোচনা চলে সোশ্যাল মিডিয়ায় কিন্তু স্টার জলসার বেশকিছু জুটি মানুষের মনে আলাদা জায়গা করে নিয়েছে।

খড়িদ্ধি জুটি একরকম জনপ্রিয় আবার লালন আর ফুলঝুরি মানুষের কাছে একটা ইমোশনের জায়গা। পিহুরাজ বেশ হাইপ তুললেও বর্তমানে তাদের একনিষ্ঠ ভক্তরা ছাড়া তাদের নিয়ে কেউ মাতামাতি করে না। তবে আস্তে আস্তে একটা জুটি নিজেদের একটা বিশাল বড় ভক্তগোষ্ঠী বানিয়ে ফেলেছে। তারা সোশ্যাল মিডিয়ায় হইচই বেশি করে না কিন্তু নিজেদের পছন্দের জুটির প্রতি ভালোবাসাটা ঠিক জানায়।


তারা হলো অরিন্দম আর নোলক অর্থাৎ অরিলোক। অসমবয়সী সম্পর্ক নিয়ে তৈরি হয়েছিল গল্প আর প্রথম প্রমো দেখার পরেই প্রচণ্ড ট্রোলের শিকার হয়েছিল এই ধারাবাহিক। কৌশিক সেন এবং নবাগতা সোমু সরকারের অভিনয় সকলের মুখ বন্ধ করে দিয়েছে। এখন এই জুটিকে সকলেই পছন্দ করে। কৌশিক সেন জাত অভিনেতা আমরা সকলেই জানি কিন্তু সোমু সরকার পাল্লা দিয়ে অভিনয় করছে তা না হলে এই সিরিয়াল দেখতে ভালো লাগত না কারোর।

গত পরশু গেছে সমুর জন্মদিন আর সেই উপলক্ষ্যে শুটিংয়ের থেকে সকলের ছুটি ছিল। ভক্তদের অজস্র শুভেচ্ছা এবং গিফট পেয়েছে সোমু সরকার। তার বাংলাদেশের ভক্ত তার জন্মদিন উপলক্ষ্যে পথশিশুদের খাইয়েছে। বোঝাই যাচ্ছে যে কতটা জনপ্রিয় হয়েছেন তিনি মাত্র কয়েক মাসেই।


আর এবার ধারাবাহিকে আসছে ভালো গল্প। আসলে সকলেই চাইছিলেন অরিন্দম আর নোলকের মধ্যে এবার মিলটা হোক। অনেক ঝড়ঝাপটা গেছে দুজনের মধ্যে, রোহিনী অনেক চেষ্টা করেছে দুজনকে ভাঙার কিন্তু পারেনি। এবার সামনে এলো নতুন এপিকাট যেটা দেখে দর্শক বেজায় খুশি।

এখানে আমরা দেখতে পাচ্ছি অরিন্দম আর নোলক একে অপরকে কথা দিচ্ছে যে তারা দুজনে দুজনকে ছেড়ে কোথাও যাবে না, সারা জীবন একসঙ্গে থাকবে। এই দৃশ্য দেখার জন্যই তো অপেক্ষা করেছিলেন নেটিজেনরা। অনেকেই বলছেন যে এই দুজনের মধ্যে যে কেমিস্ট্রি তৈরি হয়েছে সেটা বাংলা টেলিভিশনের অন্য কোন জুটির মধ্যে এখনো দেখা যাচ্ছে না। এদের এক্সপ্রেশন এত ভালো যে বিষয়টা পুরো ন্যাচারাল মনে হচ্ছে।

অনেকে এদের সঙ্গে জি বাংলার সিধাই জুটির তুলনা করেছেন। সেখানে মিঠাই কে এক্সপ্রেস করতে হবে দেখা গেলেও সিদ্ধার্থর চোখে মুখের অনুভূতির কোন পরিবর্তন হয় না। অ্যাংরি ইয়ং ম্যান হিসেবে সিদ্ধার্থ ঠিক আছে কিন্তু রোমান্টিক চরিত্রে তাকে একদম মানায় না। সে রোমান্টিক অভিনয়টা করতেই পারে না। এরকমটাই মত অনেকের। নতুন টাইম স্লটে অরিলোক জুটির ভালোবাসা দেখার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন সকলে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button