Bangla Serial

Ekka Dokka: পোখরাজ-রাধিকার মধ্যে দূরত্ব! রাধিকাকে চোর অপবাদ দিল শ্বশুরবাড়ির লোক, রেগে গেলো পোখরাজ! তাহলে কি শ্বশুরবাড়ির ভাত আর জুটবে না?

আজকাল বাংলা টেলিভিশনে টিআরপির দৌরাত্ম এত বেশি যে তার দৌলতে প্রায় প্রতিটি সিরিয়ালে একের পর এক চমক আসতেই থাকে। তার সঙ্গে গল্পে ঢুকতে থাকে বিভিন্ন ধরনের বিতর্কিত বিষয়।

যারা নিয়মিত সিরিয়াল দেখে সে দর্শকরা জানে বিগত কয়েকটি মাসে প্রায় সব কটি বাংলা চ্যানেলে একের পর এক নতুন নতুন সিরিয়াল আসছে এবং এখনো নতুন নতুন সিরিয়ালের ঘোষণা হয়ে চলেছে। এরমধ্যে নতুন শুরু হওয়া এবং দর্শকদের মনে সহজেই জায়গা করে নেওয়া একটি সিরিয়াল হয়ে উঠেছে স্টার জলসার এক্কা দোক্কা।

রাধিকা এবং পোখরাজের জুটি দর্শকদের যেমন ভালো লেগেছে তেমন ভালো লেগেছে তাদের কেমিস্ট্রি। একসময় একে অপরকে সহ্য করতে পারত না কিন্তু এখন একে অপরের পাশে সবসময় রয়েছে। বিয়ের পর তা শ্বশুরবাড়ির কেউ মেনে নেয়নি তাই তার স্বামীর পোখরাজ তাকে সর্বদা সঙ্গে রাখে এবং তার পাশে থেকে তাকে ছায়ার মতো আগলে রাখে কোন সমস্যা থেকে।

কিন্তু সম্প্রতি এই ধারাবাহিকের একটি নতুন পর্বের ঝলক সামনে এসেছে যেখানে সম্পূর্ণ এর বিপরীত ছবিটা ফুটে উঠল। দেখা গেল রাধিকা, মেজ কাকিমার ঘরে? কিছু কাগজ খুঁজে আর ঠিক সেই সময় বাড়ির সবাই সেখানে চলে আসে এবং হাতেনাতে রাধিকাকে ধরে। সবাই ধরে নেয় রাধিকা ওখানে গয়না চুরি করছিল এবং ঠাকুমা সরাসরি তাকে চোর অপবাদ দেয় আর বাড়িতে রাখবে না সেটাও বলে দেয়।

ঠিক এর পরেই রাধিকা অপেক্ষা করে পোখরাজ কখন তার পাশে আসবে কিন্তু এক্ষেত্রে তা হয় না এবং পোখরাজ সরাসরি রাতে কাকে বলে এবার তাকে নিজেকেই প্রমাণ করতে হবে যে সে চুরি করেনি। এই নিয়ে মহা সংকটে পড়ে গেল রাধিকা। তাকে এবার নিজেকে সঠিক প্রমাণ করে আবার শ্বশুর বাড়ির সকলের মন জয় করার পাশাপাশি পোখরাজের বিশ্বাস অর্জন করতে হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button