Bangla Serial

Alta Foring: খারাপ খবর! টিআরপির অভাবে এবার কপাল পুড়লো ‘আলতা ফড়িং’-এর! নায়ককে আচমকা ‘খলনায়ক’ বানানোই হলো কাল 

প্রায় সাত-আট বছর পর ছোট পর্দায় ফিরছেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। ‘স্টার জলসা’য় ‘মেয়েবেলা’ ধারাবাহিকের হাত ধরে ফের পর্দায় নামছেন এই অভিনেত্রী। ধারাবাহিকের ট্রেলার দেখে বেশ জমজমাট হতে পারে এই গল্প, তার আন্দাজ করা যাচ্ছে। আটপৌরে, সাদামাঠাভাবে অভিনয় থেকে সাজপোশাক, স্ক্রিপ্টও বেশ বাস্তব-ঘেঁষা। হাই-ভোল্টেজ মেলোড্রামা কিংবা অভিনয়ে অতিনাটকীয়তার দাপট তেমন একটা নেই বললেই চলে।

ধারাবাহিকে মেজ বউয়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। এক অসাধারণ কনসেপ্ট এবং ক্রিয়েটিভিটির সাথে এই ধারাবাহিক ‘মেয়েবেলা’ আনছেন দেবিকা মুখোপাধ্যায়। তবে এই ধারাবাহিকের জন্য ষ্টার জলসায় নিজের জায়গা হারাতে বসেছে আরো দুই জনপ্রিয় ধারাবাহিক, এক ‘সাহেবের চিঠি’। মাত্র ৭ মাস হয়েছিল এই ধারাবাহিক শুরু হয়েছে। এরইমধ্যে বিদায়ের খাতায় নাম লেখাল ‘সাহেবের চিঠি’। ৭ মাসেই ইতি টানল স্টার জলসার ‘সাহেবের চিঠি’ ধারাবাহিকটি।

অন্যটি হল, আলতা ফড়িং। তবে এই ধারাবাহিক এখনই বন্ধ হচ্ছে না শুধু সময় পরিবর্তন হচ্ছে। তাই এখনই এই ধারাবাহিকের ভক্তদের জন্য কোনও খারাপ খবর নেই। প্রসঙ্গত নতুন মেগা ‘মেয়েবেলা’-র নাম শুনেই বোঝা যাচ্ছে, গল্পটি নারীকেন্দ্রিক। ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন ছোটপর্দার পূর্ণা – স্বীকৃতি মজুমদার। নতুন এই মেগাতে শাশুড়ি -বৌমার ভূমিকায় রয়েছেন রূপা – স্বীকৃতি। পাশাপাশি এখানে একটি বিশেষ চরিত্রে দেখা মিলবে অভিনেত্রী দেবপর্ণা।

জানা গিয়েছে, আগামী ২৩শে জানুয়ারি থেকে সোম থেকে রবি প্রতিদিন সন্ধ্যে ৭.৩০টার সময় সম্প্রচারিত হবে ‘মেয়েবেলা’। এই সময়ে এতদিন ‘আলতা ফড়িং’ সম্প্রচারিত হয়ে এসেছে। এক বছর অতিক্রম করতে না করতেই টিআরপির অভাবে ‘আলতা ফড়িং’ বন্ধ হয়ে যাবে বলে অনুমান করেছিল অনেকে। তবে এখন শুধু ধারাবাহিকের টাইম স্লট পরিবর্তিত হচ্ছে।

উল্লেখ্য, সাহেবের চিঠি বন্ধের খবর পাওয়া গিয়েছিল আগেই। ৮ মাসের মাথায় বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে সিরিয়ালটিকে, এমনটাই শোনা যায়। কিন্তু ৭ মাসের আগেই বন্ধ হয়ে যেতে বসেছে ‘সাহেবের চিঠি’। আর এই ‘সাহেবের চিঠি’ বদলে সন্ধে ৬.৩০ টার সময়টাতে এবার থেকে দেখতে পাবেন ‘আলতা ফড়িং’। শুরুর দিকে ‘আলতা ফড়িং’ ধারাবাহিকটি বেশ ভালই জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। ফড়িং এবং তার ব্যাঙ্ক বাবুর সম্পর্কের উপর ভিত্তি করে ধারাবাহিকটি বেশ ভাল টিআরপিও আনছিল। তবে আচমকা নায়কের চরিত্র পরিবর্তন করতেই সমস্যা তৈরী হল। নায়ককে আচমকা খলনায়ক হিসেবে উপস্থাপন করাকে মেনে নিতে পারছেন না দর্শকের একাংশই।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button