Bangla Serial

Anurager Choya: লীনা পিসির পরকীয়া থামছে না! টিআরপি তুলতে এবার সূর্য-দীপার সংসার ভেঙে আবার সূর্য মিশকার বিয়ে! “জলসা একাধিক বিয়ে দেখালে সেটা ইউনিক আর জি করলে পরকীয়া?” রেগে আগুন জি বাংলা ভক্তরা

এই মুহূর্তে যে কটি বাংলা ধারাবাহিকে টানটান উত্তেজনার পর্ব চলছে তার মধ্যে অন্যতম হলো স্টার জলসা অনুরাগের ছোঁয়া। আলাদা করে এই সিরিয়াল নিয়ে কিছু বলতে হয় না কারণ বরাবর টিআরপিতে নিজেকে ধরে রেখেছে সূর্য-দীপার কেমিস্ট্রি।

যদিও বর্তমানে এই কেমিস্ট্রি তো একেবারেই নেই তার উপরে এসে জুটেছে মিশকা শয়তান। আর সেটাই দর্শকরা চেয়ে চেয়ে দেখছে। মিশকা আসার পর থেকে সূর্য এবং দীপার মধ্যে দূরত্ব তৈরি হয়েছে। তার মধ্যে আবার জমজ সন্তান হয়েছে তাদের সোনা আর রূপা। যদিও দুজনের মধ্যে কেউই তাদের আরেকটি সন্তানের কথা জানে না।

এবার ধারাবাহিকের আরো একটি ঝলক সামনে এলো যেখানে আগামী পড়বে দেখা যাবে প্রথম পক্ষের স্ত্রী অর্থাৎ দীপা জীবিত থাকা অবস্থাতেই আবার দ্বিতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছে সূর্য। এবার সে বিয়ে করছে তার বান্ধবী মিশকাকে।

এদিকে দুজনের বিয়ের মণ্ডপে বাচ্চা নিয়ে হাজির হয় দীপা। আগামী পর্বে আমরা দেখব বিয়ের মন্ডপে দাঁড়িয়ে হবু বউ কাউকে একটা ফোন করছে। সূর্যের বোন রয়েছে সেখানে এবং সে জানে না কার সঙ্গে বিয়ে হচ্ছে মিশকার। পুরোহিতকে জিজ্ঞাসা করলে পুরোহিত জানিয়ে দেয় এখানে বিয়ে হচ্ছে সূর্য সেনগুপ্ত এবং মিশকা সেনের। সূর্যের বোন বাড়ি ফিরে এসে জয়কে এই কথা জানিয়ে দেয়।

উর্মি, জয় আর সূর্যের বোন দীপার কাছে এসে বলে তুই এখানে দাঁড়িয়ে আছিস আর ওদিকে মিশকা তোর বরকে ভুলিয়ে-ভালিয়ে বিয়ে করে নিচ্ছে। চমকে ওঠে দীপা।

May be an image of 1 person, standing and text
এদিকে সূর্যের দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় কটাক্ষের ঝড় শুরু হয়ে গেছে। বিশেষ করে জি বাংলার ভক্তরা এই নিয়ে চরম সমালোচনা শুরু করে দিয়েছে। একজন তো লিখেই ফেলল যে “সিড মিঠিকে বিয়ের পিড়িতে দেখে যারা ট্রোল করছিলেন তারা এখন কোথায়?? পথে উর্মি আর ভাটিয়ার বিয়ের প্রমো দেখে প/র/কি/য়া বলে চেচিয়েছিলেন তারা এখন কোথায়??
তবু তো মিঠাই মারা গেছে সবাই তাই জানে..
আর উর্মির সাথে সাত্যকির ই বিয়েটা হয়েছে!!
কিন্তু দীপা তো আর মারা যায়নি, ডিভোর্স ও হয়নি তাও সূর্য বিয়ের পিড়িতে। ঝলসায় বিয়ে করলে সেটা ইউনিক আর জী তে বিয়ে করলে সেটা প/র/কী/য়া। অনুজ লাইট সূর্য”।

No photo description available.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button