Bangla Serial

Susmita Dey: পুজোর অনুষ্ঠান জমিয়ে দিল “অপরাজিতা অপু”র অপু সুস্মিতা দে! হিন্দি গান গেয়ে ভাইরাল নায়িকা! “গায়কের সংখ্যা কি কম পড়েছে?” চরম খিল্লি নেট দুনিয়ার

আজ দশমী আর তার মানেই আবার অপেক্ষার প্রহর গোনা শুরু। যদিও পুজো পুজো আমেজ এখনো থেকে গেছে। পাড়ার প্যান্ডেলে ভাসান হয়নি মায়ের। তবু মনটা বিষন্ন সকলের সকাল থেকেই। পাড়ায় পাড়ায় শেষ মুহূর্তের ঢাক বাজছে।

তবে এই কদিন আলোর রোশনাই দেখেছে শহর। সঙ্গে বিভিন্ন মন্ডপে নানা নাচ গানের অনুষ্ঠান। সবমিলিয়ে এই কদিন বেশ মেতে ছিল শহরবাসী। তবে আগামী এক বছর পর্যন্ত তার স্মৃতি রোমন্থন করা ছাড়া আর কোন উপায় নেই আমাদের কাছে।

এমনই এক মুহূর্তে ভাইরাল হল এক অভিনেত্রীর ভিডিও। খুব একটা কাজ না করলেও যে কটি কাজ করেছেন তিনি এ যাবৎ বাংলা টেলিভিশনে তার মধ্যে দিয়েই যথেষ্ট সুখ্যাতি অর্জন করেছেন এবং রীতিমতো জনপ্রিয় নায়িকা হয়ে উঠেছেন খুব অল্প সময়ের মধ্যে। তিনি হলেন অভিনেত্রী সুস্মিতা দে।

অপরাজিতা অপু, বৌমা একঘর দুটোই শেষ হয়ে গেছে সদ্য। দুই ধারাবাহিকেই ভিন্ন চরিত্রের অভিনয় করেছেন সুস্মিতা। ধারাবাহিক শেষ হবার কারণে বেশ মন খারাপ হয়েছে ভক্তদের। তারা আবার দেখতে চাইছে সুস্মিতাকে পর্দায়। তবে পর্দায় দেখা না গেলেও এক অনুষ্ঠানের মঞ্চে এবার দেখা গেল এই অভিনেত্রীকে। আর সেটা অভিনয়ের জন্য নয় বরং সম্পূর্ণ এক অন্যরূপে ধরা দিলেন সুস্মিতা।

আসলে বিভিন্ন উৎসব অনুষ্ঠানে পাড়ার বিভিন্ন মঞ্চে নানা রকম অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়ে থাকে। তেমনি কোন এক অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন অভিনেত্রী। মঞ্চের চারপাশ ঘিরে বসে রয়েছে দর্শকরা আর মাঝখানে গান গাইছেন সুস্মিতা হিন্দি গান “দিল মে বাজি গিটার” গেয়ে গোটা মঞ্চে আলোরণ সৃষ্টি করলেন তিনি। নায়িকার পারফরমেন্সে খুশি দর্শকরা।

যদিও প্রশংসার বন্যা বয়ে গেছে কমেন্ট বক্সে তবে কিছু মানুষ কটাক্ষ করতে ছাড়েনি। কিছু কিছু জায়গায় নায়িকার সুর বা তাল কেটে গেছে আর সেগুলো নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়তে হলো সুস্মিতাকে। অনেকেই প্রশ্ন করছে বাংলায় কি ভালো ভালো গায়ক বা গায়িকার হারিয়ে গেছে নাকি আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না তাদের? আবার অনেকেই বলছে, কত ভালো ভালো ছেলে মেয়ে রয়েছে যারা ভালো গান গাইতে পারে তাদের জায়গায় এদের টাকা খরচ করে এনে এরকম গান গাওয়ানোর কোন মানে হয় না। আবার কেউ কেউ বলছে এর থেকে রানু মন্ডল ভালো গান গাইতে পারে কিংবা কেউ বলছে সুস্মিতা রানু মন্ডলের ছোট বোন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button