Bangla Serial

Mithai: মিঠাইয়ের কি এই একটাই জুতো? ‘এত বড় অভিনেত্রী তবু জুতো কিনতে পারে না!’, বারবার একই জুতো পরে ছবি দেওয়ায় এবার সৌমিতৃষাকে আক্রমণ করে বসলেন কিছু দর্শক

যে কোনো সেলিব্রেটি বা তারকাকে সাধারণ মানুষ নকল করে থাকে একথা বলাই বাহুল্য। বিশেষ করে সেই সেলিব্রেটির ব্যক্তিগত সাজ পোশাক বা চলনবলন এই সমস্ত কিছু সবথেকে বেশি নজর কেড়ে নেয় তার ভক্তদের।

মিঠাইয়ের ক্ষেত্রেও তার অন্যথা হয়নি। মাত্র একটি ধারাবাহিকের দৌলতে আজ অভিনেত্রী সৌমীতৃষা কুণ্ডু স্টার হয়ে উঠেছে। খুব কম বয়সেই এতটা সাফল্য পেয়েছে এই নায়িকা। আজ সে শুধু মোদক পরিবারের নয়, যে কোনো সাধারণ মধ্যবিত্ত বাড়ির বৌমা অথবা মেয়ে হয়ে উঠেছে।

ঠিক এই কারণেই মিঠাইয়ের ভক্তরা অনবরত তাকে নজরে রাখে। মিঠাই কখন কোথায় যাচ্ছে, ব্যক্তিগত কী পোস্ট করছে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেগুলোর প্রতি বেশি আগ্রহ থাকে তার দর্শকদের বা ভক্তদের। আগেই বললাম সোশ্যাল মিডিয়ায় আজকাল বিভিন্ন ধরনের ফ্যাশন ট্রেন্ড ফলো করে থাকে মানুষ। বিশেষত আজকাল বিভিন্ন ধরনের লুক ট্রেন্ডে উঠে এসেছে।

এর মধ্যে অন্যতম হলো অফিস লুক। তবে অন্যান্য অফিসের থেকে মিঠাইয়ের অফিস তো একেবারেই আলাদা। কারণ সেখানে শুটিং হয়। তাই শুটিংয়ের খাতিরে মিঠাইকে নিজের চরিত্র অনুযায়ী পোশাক পরতে এবং মেকআপ করতে হয়। তাই সেই দিক দিয়ে সে খুব বেশি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার সুযোগ পায় না নিজের সাজ নিয়ে।

এই নিয়ে মিঠাইয়ের ভক্তদের মাঝে কোন ক্ষোভ নেই। তাদের বক্তব্য অন্য বিষয়কে নিয়ে। আর সেই বিষয়টিকে কেন্দ্র করেই কটাক্ষের কেন্দ্র পরিণত হয়েছে মিঠাই ওরফে সৌমীতৃষা কুণ্ডু। সেটা হলো নায়িকার জুতো।

এই বিষয়টা খুব সাধারণ মনে হলেও যেকোনো ধরনের সাজের সঙ্গে যে কোন জুতো পরা যায় না এটা সবাই জানে। তবে ইদানিং মিঠাইয়ের বেশ কিছু পোস্টে ভক্তদের নজর পড়েছে তার জুতোর দিকে। বেশ কিছু পোষ্টের ক্ষেত্রে দেখা গেছে মিঠাই একই জুতো পরে রয়েছে।

ঠিক এই বিষয়টাকে নিয়েই প্রশ্ন তুলেছে দর্শকরা। একাংশের বক্তব্য মিঠাইয়ের আর কি কোন জুতো নেই? পয়লা বৈশাখ স্পেশাল এপিসোডে দেবের সঙ্গে শুটিং করতে গিয়েও মিঠাই অফস্ক্রিন যে জুতো পরেছিল সেই একই জুতো পরে সে সম্প্রতি একটি রিল ভিডিও আপলোড করেছে। এটা একেবারেই ভালো লাগেনি মানুষের। তাদের উপদেশ বিভিন্ন লুক অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের জুতো মানানসই। তাই রুচিশীল অভিনেত্রী হিসেবে নায়িকার উচিত এগুলি মেনে চলা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button