Entertainment

KGF Chapter 2 হেরে গেল বাংলার অপরাজিতর কাছে! বাংলার জয়জয়কার ভারতের সমস্ত সিনেমা হলে

বিশ্ববরেণ্য পরিচালক সত্যজিৎ রায়ের স্ট্রাগলকে পর্দায় তুলে ধরে ইতিমধ্যেই আন্তর্জাতিক সম্মান পেয়েছেন পরিচালক অনিক দত্ত। পথের পাঁচালী’-র মতো মাস্টারপিস তৈরির কাহিনি বড় পর্দায় ফুটে উঠেছে অপরাজিতর মাধ্যমে। বর্তমানে IMDB -তে ৯.২ রেটিং পেয়েছে এই বাংলা সিনেমাটি।

সম্প্রতি অন্য কোনও বাংলা ছবি এমন রেটিং পায়নি। বলিউডি ছবির রেটিংও নাকি এতটা নয়। অস্থায়ী কেজিএফ চ্যাপটার টুকে ঠেলে এগিয়ে গেল অপরাজিত।

সবেমাত্র মুক্তি পেয়েছে অনিক দত্ত পরিচালিত অপরাজিত। কিন্তু ছবিটির পরপর শো হাউজফুল যাচ্ছে। মাঝেমধ্যেই নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে তুলে ধরছেন অপরাজিত রায় অর্থাৎ সত্যজিৎ রায়ের চরিত্রে অভিনয় করা অভিনেতা জিতু কামাল।

বর্তমানে মুম্বইতেও ‘অপরাজিত’-র ব্যাক টু ব্যাক শো হাউজফুল হয়ে যাচ্ছে। জুহুর একটি মাল্টিপ্লেক্সের ছবি শেয়ার করে ছবির সাফল্যের কথা তুলে ধরেছেন জিতু।

আন্তর্জাতিক সম্মানের কথা বলতে গেলে টরন্টো ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল থেকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে এই ছবিটিকে। এছাড়া নাকি লন্ডন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালেও দেখানো হবে। বাবাকে সিনেমাস্কোপে দেখাটা অবিশ্বাস্য লাগছিল ছেলে সন্দীপ রায়ের। কিন্তু এরই মাঝে বিতর্ক ছুঁয়ে গেছে এই সিনেমাকে কেন্দ্র করে। বাংলাতে সঠিক সম্মান পায়নি বলে বিতর্ক উঠেছে। নন্দনে একটা শো এখন অবধি স্থান পায়নি। পরিচালক অনিক দত্ত এই নিয়ে হতাশ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button