Connect with us

Viral

ক্লাসরুমে ছাত্রীদের নাচ, ভাইরাল ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই কড়া স্কুল কর্তৃপক্ষ

Published

on

দীর্ঘদিন করোনা পরিস্থিতির কারণে ছাত্র ছাত্রীদের স্কুল বন্ধ ছিল। এই নিয়ে সমস্যার অন্ত ছিল না। বহু ছাত্র ছাত্রী স্কুল বিমুখ হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন পরে স্কুল খোলায় খুশি সকলেই। কিন্তু স্কুলে পড়াশোনা না করে ছাত্রীদের উদ্যম নাচের ভিডিও বার বার ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে।
বাঁকুড়ার একটি স্কুলে ছাত্রীরা স্কুল উইনিফর্ম পরে স্কুল চলাকালীন নাচতে শুরু করে।সেই নাচের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিয়ে সহজেই ভাইরাল হয়।সেই ভিডিও ঘিরে শোরগোল পড়ে যায় বাঁকুড়ার জঙ্গলমহলের রাইপুর এলাকায়। ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই কড়া ব্যবস্থা নিল স্কুল কর্তৃপক্ষ।
সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে রাইপুর ব্লকের একটি হাইস্কুলের দ্বাদশ শ্রেণির ৪-৫ জন ছাত্রী স্কুল ইউনিফর্ম পরেই ক্লাসরুমের মধ্যে বাংলা ও হিন্দি গানের তালে তালে নাচছে। ছাত্রীদের নাচের ভিডিও শনিবারই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিও ভাইরাল হতেই সহজে স্কুল কর্তৃপক্ষ হাতে আসে ভিডিওটি। তারপরেই নড়ে চড়ে বসে স্কুল কর্তৃপক্ষ। পরিচালন সমিতির বৈঠক ডাকা হয়।

স্কুল কর্তৃপক্ষ তাদের অভিভাবকদের ডেকে পাঠানো হয়।রাইপুরের ওই হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক ঘটনার কথা মেনে নিয়েছেন। প্রধান শিক্ষক মধুসূদন মণ্ডল বলেন, “সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্বাদশ শ্রেণির ৪-৫ জন ছাত্রীর নাচের একটি ভিডিও পোস্ট হয়েছে। ওই ভিডিওয় স্কুলের ছাত্রীরাই রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। স্কুলের মধ্যে এধরনের ভিডিও তৈরি করা একেবারেই অনুচিত। বিষয়টি জানার পরই দ্রুত পরিচালন সমিতির বৈঠক ডাকা হয়েছিল। বৈঠকে আজ ওই ছাত্রীর অভিভাবকদের ডাকা হয়। একই সঙ্গে এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ছাত্রছাত্রীদের স্কুলে মোবাইল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ছাত্রীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।”
জানা যাচ্ছে শুক্রবার ক্লাসের মধ্যে কেউ ভিডিওটি করে নেট মাধ্যমে পোস্ট করে। তারপরেই ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয় সেই ভিডিও।যদিও এক শিক্ষকের দাবি কেউ পরিকল্পিত ভাবে স্কুলের নাম বদনাম করার জন্য নাচের মধ্যে দিয়ে রিমিক্স গান লাগিয়েছে।এক অভিভাবক বলেন, ক্লাসরুমের মধ্যে ভিডিও করা ঠিক হয়নি। তবে ছাত্রীদের ওই ভিডিও এডিট করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়ানো হয়েছে। এটা অত্যন্ত কুরুচিকর।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Trending