Connect with us

Viral

চাকরি জোটে নি, বাধ্য হয়ে ফুচকা বিক্রি করছেন স্নাতক ‘গোলগাপ্পা ওয়ালা’, বলছেন ঝরঝরে নির্ভুল ইংরেজি, মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও

Published

on

সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে এখন কত কিছুই না ভাইরাল হয়। নানান কোণে লুকিয়ে থাকা নানান প্রতিভা যেমন উঠে আসেন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে, তেমনই নানান অবাক করা ঘটনাও আমরা দেখতে পাই সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সম্প্রতি কানপুরের এক ফুচকা বিক্রেতার ভিডিও বেশ ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে তাঁর আদপ কায়দায় ফুচকা বিক্রি বা তাঁর ফুচকার অনবদ্য স্বাদের জন্য নয়, বরং তিনি ভাইরাল হলেন তাঁর মুখের ইংরেজি কথার জন্য।

হ্যাঁ, ঠিকই পড়ছেন। ফুচকা বিক্রেতা কিন্তু তাঁর মুখ দিয়ে বেরিয়ে আসছে ঝরঝরে নির্ভুল ইংরেজি। এই ভিডিওটি পোস্ট করেছেন গৌরব ওয়াসন নামের এক ইউটিউবার। পোস্ট হতেই তুমুল ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিওটি। এই ভিডিওতে এখনও পর্যন্ত তিন লাখেরও বেশি ভিউ হয়েছে। কমেন্ট সেকশনে বন্যা বয়ে গিয়েছে রীতিমতো।

এই ভিডিও থেকে জানা যাচ্ছে, ওই ফুচকা বিক্রেতার দোকানের নাম মুরলী পাটাশেওয়ালা। ফুচকা, দহি ভাল্লা, এমন নানান জিভে জল আনা পদ তৈরি করেন ওই ব্যক্তি। তিনি ইংরেজিতে যা বললেন, এর বাংলা অনুবাদ করলে যা দাঁড়ায়, তা হল, “আমার নাম রাহুল। খুবই সাধারণ একটি নাম। আর আমি হলাম সেই বিখ্যাত স্নাতক ফুচকাওয়ালা। আমার বাবাও খুব বিখ্যাত ছিলেন তাঁর ফুচকার জন্যই। আমি আর বাবা বরাবরই ফুচকার সব মশলা আমাদের বাড়িতেই তৈরি করি”।

এক ফুচকা বিক্রেতার মুখ থেকে এত ভালো ইংরেজি শুনে বেশ অবাক হয়েছে নেট দুনিয়া। নেটিজেনদের কেউ লিখেছেন, “অনেক গ্র্যাজুয়েটের থেকেই ভাল ইংরেজি বলতে পারেন এই ফুচকা বিক্রেতা”। আবার অন্য একজন লিখছেন, “চার্মিং”। সব মিলিয়ে এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ শোরগোল ফেলে দিয়েছে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Gaurav Wasan (@youtubeswadofficial)

তবে কেউ কেউ আবার এই ভিডিওর অন্য দিকটিও তুলে ধরেছেন। এতো ভাল ইংরেজি যদি কেউ বলতে পারেন, তাহলে তিনি ফুচকা বিক্রি করছেন কেন? এই ভিডিওর কমেন্ট সেকশনে এক নেটিজেন লেখেন, “একটা গ্র্যাজুয়েট ছেলে এই ভাবে ফুচকা বিক্রি করছে কেন? ইংরেজিটাও খুব ভাল বলে”। তিনি আরও বলছেন, “একটা জিনিস দেখেও খুব ভাল লাগল যে, এত শিক্ষিত একটা ছেলে। কিন্তু আমাকে একটা বিষয় বলুন, গ্র্যাজুয়েট হওয়া সত্ত্বেও কেন সে ফুচকা বিক্রি করছে”।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Trending